চীন, ভারত ও আসিয়ান দেশগুলো মিয়ানমারকে সমর্থন করছে

বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) রাষ্ট্রদূত রেনসে তেরিংক বলেছেন, রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায় ও টেকসই প্রত্যাবাসনের ওপর জোর দিয়ে এই সংকটের একটি স্থায়ী সমাধান বের করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এক হওয়া উচিত।

তার মতে, রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান সহজ নয়। এজন্য ইইউর পাশাপাশি সব দেশকে এগিয়ে আসতে হবে। অনেকে বলে থাকেন যে, ইইউ যথেষ্ট করছে না, কিন্তু অন্য দেশগুলো মিয়ানমারে কী করছে, সেটি লক্ষ্য করেন। চীন, ভারত ও আসিয়ান দেশগুলো মিয়ানমারকে সমর্থন করছে। আমার মনে হয়, সব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এই সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসতে হবে।

গতকাল বুধবার রাজধানীর এক হোটেলে কূটনৈতিক প্রতিবেদকদের সংগঠন ডিক্যাবের সদস্যদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। স্পেন, ইতালি, নেদারল্যান্ডস, সুইডেন এবং ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূতরাও ‘ডিক্যাব টকে’ বক্তব্য রাখেন। সংগঠনের সভাপতি আঙ্গুর নাহার মন্টির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান।

ইইউ রাষ্ট্রদূত বলেন, রোহিঙ্গারা নিজ দেশে (মিয়ানমার) ফিরে যেতে চায়। আমাদের উচিত এতে সমর্থন দেওয়া। মিয়ানমারে নির্বাচনের বিষয়ে তিনি বলেন, দেশটিতে গত মাসে নির্বাচন হয়েছে। সেখানে গণতন্ত্র সবে শুরু হয়েছে। নির্বাচনের পর কী অবস্থা হবে, সেটি এখন দেখার বিষয়। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ছাড়াও রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর এবং বাণিজ্যসংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়েও কথা বলেন ইইউ রাষ্ট্রদূত। সূত্র: ইত্তেফাক

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর শিক্ষা দেয় মানবতার ধর্ম ইসলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *