৪ বছরে ইরানের বিরুদ্ধে ১৫ হাজার নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

২০১৫ সালে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা নিয়ে নতুন করে আলোচনা গ্রহণযোগ্য নয়। গত চার বছরে ইরানের বিরুদ্ধে ১৫ হাজারের বেশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু ইউরোপীয় ইউনিয়ন পরমাণু চুক্তি বাস্তবায়নের ব্যাপারে তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে। জাতিসঙ্ঘে নিযুক্ত ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভাঞ্চি মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদের এক বৈঠকে এ কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে কঠিন আলোচনার পর দু’পক্ষের বিভিন্ন শর্ত সমাধান করে পরমাণু সমঝোতা সই হয়েছিল। এখন এই সমঝোতা পুনর্মূল্যায়ন বা নতুন করে আলোচনার জন্য যেকোনো ধরনের প্রস্তাব ইরানের কাছে গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। এই ধরনের পদক্ষেপ জাতিসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে ২২৩১ নম্বর প্রস্তাবের লঙ্ঘন হবে।

ইরানের প্রতিনিধি স্পষ্ট করে বলেন, তেহরান তার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে কারো সাথে কোনো আলোচনা করবে না এবং বলদর্পী কোনো শক্তি ইরানকে ভয় দেখাতে পারবে না। মাজিদ তাখতে রাভাঞ্চি বলেন, ভবিষ্যতে ঐতিহাসিক এই চুক্তি নিয়ে যেকোনো ধরনের পরিবর্তনের চেষ্টা ব্যর্থ হবে।

ইরান-বিরোধী নিষেধাজ্ঞা দিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে চাপ সৃষ্টি করে চলেছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু। ইরানের এ কূটনীতিক আরো বলেন, করোনা মহামারিতে ইরান যখন কঠোর লড়াই করছে তখনো তারা তাদের দায়িত্ব পালন করেনি বরং ধ্বংসাত্মক বলদর্পীনীতির অংশহিসেবে যুক্তরাষ্ট্র যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তা বাস্তবায়নে সহযোগিতা করেছে ইউরোপ।

সূত্র : পার্সটুডে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  ৩ জানুয়ারি: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *