৩ জানুয়ারি: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

১৯৮২ সালের এই দিনে বাংলাদেশের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বিএনপির প্রাথমিক সদস্য হিসেবে দলে যোগ দেন।

আজ ৩ জানুয়ারি, ২০২০ শুক্রবার। ১৯ পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ। গ্রেগরিয়ান বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের তৃতীয় দিন। এক নজরে দেখে নিই ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা,বিশিষ্টজনদের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৪৩১ – জোয়ান অব আর্ককে বিশপের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

১৪৯২ – রানী ইসাবেলা ও ফার্ডিনান্ডের বাহিনীর নিকট যুবরাজ আবু আবদিলের বিশ্বাসঘাতকতায় মুসলিম স্পেনের রাজধানী গ্রানাডার পতন। স্পেনের শেষ উমাইয়া রাজা আবুল হাসানের রাজ্য ত্যাগ করে।

১৪৯৬ – লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চি উড়োজাহাজ চালানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

১৫২১ – পোপ দশম লিও এক ডিক্রি বলে বিখ্যাত খৃষ্ট ধর্মবিদ মার্টিন লুথারকে ক্যাথলিক চার্চ থেকে বহিস্কার করেন।

১৭৫৭ – ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিকে তাদের আগের বিশেষ অধিকার ফেরত দেন নবাব সিরাজ উদ দৌলা।

১৭৭৭ – আমেরিকান স্বাধীনতা যুদ্ধ: জর্জ ওয়াশিংটন প্রিন্সটনের যুদ্ধে ব্রিটিশ জেনারেল চার্লস কর্নওয়ালিসকে পরাজিত করেন।

১৭৮০ – ডেনমার্কের জাতীয় সংগীত ‘কং ক্রিশ্চিয়ান’ প্রথম গাওয়া হয়।

১৭৮২ – বাংলাদেশের সিলেট জেলা প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৭৯৫ – পোলান্ডের তৃতীয় বিভাজনে রাশিয়া-অষ্ট্রিয়ার মধ্যে গোপন চুক্তি স্বাক্ষর।

১৮৬১ – আমেরিকান গৃহযুদ্ধ: ডেলওয়্যার যুক্তরাস্ট্র থেকে বিভক্ত হতে অনিচ্ছা জানায়।

১৮৭০ – ব্রুকলিন সেতু তৈরির কাজ শুরু হয়।

১৮৮০ – বোম্বাইয়ে ‘ইলেস্ট্রেটেড উইকলি অব ইন্ডিয়া’ প্রথম প্রকাশিত হয়।

১৯১৯ – প্যারিস শান্তি সম্মেলন: ইরাকের আমির ফয়সাল ইহুদি নেতা ক্লেম ওয়াইজম্যানের সাথে প্যালিস্টাইনে ইহুদি বসতি নির্মানের চুক্তি করে।

১৯২৪ – বৃটিশ প্রত্মবিদ হাওয়ার্ড কার্টার এবং তার সহকর্মীরা লুক্সরের কাছে তুতাংখামেনের পাথরে নির্মিত শবাধার আবিষ্কার করেন।

১৯৪৭ – মার্কিন কংগ্রেসে প্রথম টেলিভিশনে প্রচার করা হয়।

১৯৪৯ – ফিলিপাইনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত।

আরো পড়তে পারেন:  পুরনো সম্পর্কের একঘেয়েমি দূর করার ৮ উপায়

১৯৫২ – ঢাকায় এশিয়াটিক সোসাইটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৫৬ – আগুনে আইফেল টাওয়ারের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

১৯৫৮ – স্যার এডমন্ড হিলারি দক্ষিণ মেরুতে পদার্পণ করেন।

১৯৫৮ – ওয়েস্ট ইন্ডিজ ফেডারেশন গঠিত হয়।

১৯৫৯ – ৪৯তম রাজ্য হিসাবে আলাস্কা যুক্তরাস্ট্রের সাথে যুক্ত হয়।

১৯৬১ – যুক্তরাষ্ট্র কিউবার সাথে কূটনৈতিক সর্ম্পক ছিন্ন করে।

১৯৬২ – ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট সুকর্ণ পশ্চিম নিউগিনিকে স্বাধীন প্রদেশ ঘোষণা দেন।

১৯৬৬ – কোসিগিনের প্রচেষ্টায় তাসখন্দে পাক-ভারত শীর্ষ বৈঠক শুরু।

১৯৬৮ – বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে প্রধান আসামী করে তৎকালীন পাকিস্তান সরকারের আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা দায়ের।

১৯৭৬ – গ্রিসে স্বৈরাচারী শাসক জর্জ পাপান্ডু পোলাস ও তার কয়েকজন সহচর কারাদণ্ডে দণ্ডিত হন।

১৯৮২ – বাংলাদেশের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বিএনপির প্রাথমিক সদস্য হিসেবে দলে যোগ দেন।

১৯৯০ – মার্কিন সৈন্যদের কাছে পানামার প্রেসিডেন্ট জেনারেল নরিয়েগা আত্মসমর্পণ করে।

১৯৯৩ – মার্কিন প্রেসিডেন্ট বুশ ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ইয়েলৎসিনের মধ্যে দুই-তৃতীয়াংশ পারমাণবিক অস্ত্র হ্রাস চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

১৯৯৪ – সাইবেরিয়ায় রাশিয়ার যাত্রীবাহি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১২০ জনের প্রাণহানি ঘটে।

১৯৯৮ – কেনিয়ায় ড্যানিয়েল আরোপ পঞ্চমবারের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়।

১৯৯৯ – পাকিস্তান শক্তিশারী বোমা বিস্ফোরণে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের অল্পের জন্যে প্রাণরক্ষা হয়।

১৯৯৯ – মার্কিন স্পেসশীপ ‘মার্স পোলারল্যান্ডার’ মঙ্গল গ্রহের উদ্দেশ্যে উৎক্ষেপণ।

জন্ম:

১১৯৬ – জাপানের সম্রাট সুচিমিকাডো জন্মগ্রহন করেন।

১৬৯৮ – ইতালির খ্যাতনাম কবি এবং সাহিত্যিক পেদ্রো মেটাসটাসিও জন্মগ্রহন করেন।

১৭৩২ – দানবীর হাজী মুহম্মদ মহসীন জন্মগ্রহন করেন।

১৮৬৮ – নোবেল জয়ী মার্কিন রসায়নবিদ থিওডোর উইলিয়াম রিচার্ডসের জন্ম।

১৮৭০ – অস্ট্রেলীয় ঔপন্যাসিক হেনরি হ্যান্ডেল রিচার্ডসন জন্মগ্রহন করেন।

১৮৮৮ – নাট্যকার ও চিকিৎসক জেমস ব্রিডি জন্মগ্রহন করেন।

১৯১৮ – সাংবাদিক খন্দকার আব্দুল হামিদের জন্মগ্রহন করেন।

আরো পড়তে পারেন:  সিনেমার চেয়েও ভয়ঙ্কর ঘটনা! (ভিডিও)

১৯৫৬ – অস্ট্রেলীয় অভিনেতা মেল গিবসন জন্মগ্রহন করেন।

মৃত্যু:

১৫০১ – উজবেক কবি ও বুদ্ধিজীবি নাজিমুদ্দিন মীর আলিশের নভোইয়ের মৃত্যু হয়।

১৮৭৫ – ফরাসি সম্পাদক ও কোষগ্রন রচয়িতা পিয়ের আতোনাজ লারুসের মৃত্যু হয়।

১৮৯১ – ফ্রান্সের রাজা পঞ্চম ফিলিপের মৃত্যু হয়।

১৯৮৩ – কবি কাদের নেওয়াজ-এর মৃত্যু হয়।

দিবস:

ধর্মীয় বিষয় দিবস (ইন্দোনেশিয়া), তামাসেসেরাই উৎসব (জাপান)

সূত্র: যুগান্তর

আরো পড়ুন:

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  আপাত ‘স্বাভাবিকতা’র দিকে আত্মঘাতী যাত্রা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *