৩০ নভেম্বর: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

১৯৭৭ সালের এই দিনে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান সংসদে হাঁ-না ভোটের আয়োজন করে

 

আজ ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, শনিবার। ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

গ্রেগরিয়ান বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ৩৩৪ তম (অধিবর্ষে ৩৩৫ তম) দিন।

একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৭৩১ – বেইজিংয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়।

১৭৭৬ – ক্যাপ্টেন কুক প্রশান্ত মহাসাগরে তৃতীয় ও শেষ অভিযান শুরু করেন।

১৭৮২ – ইংল্যান্ড মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা স্বীকার করে।

১৮৩৮ – মেক্সিকো ফ্রান্সের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে।

১৮৬৩ – উমাচরণ ভট্টাচার্য মুদ্রিত মাসিক পত্রিকা ‘সচিত্র ভারত সংবাদ’ প্রাকাশিত হয়।

১৮৬৬ – শিকাগোতে প্রথম পানির নিচে হাইওয়ে টানেল তৈরির কাজ শুরু হয়।

১৯৬২ – উথান্ট জাতিসংঘের মহাসচিব নির্বাচিত হন।

১৯৬৬ – বারবাডোজ স্বাধীনতা লাভ করে।

১৯৭৩ – বঙ্গবন্ধু কর্তৃক বাংলাদেশে দালাল আইনে সাজাপ্রাপ্তও বিচারাধীন সকল রাজবন্দীর প্রতি সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়।

১৯৭৭ – আর্ন্তজাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল-IFAD প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৭৭ – হাঁ-না ভোটে জিয়াউর রহমানের গণআস্থা লাভ করেন।

জন্ম:

১৪৮৫ – ইতালির মহিলা কবি ভোরোনিকা গামবারার জন্ম গ্রহণ করেন।

১৫০৮ – আন্ড্রেয়া পালাডিও, তিনি ছিলেন ইতালীয় স্থপতি।

১৫৫৪ – ফিলিপ সিডনি, তিনি ছিলেন ইংরেজ সৈনিক, সভাসদ ও কবি।

১৬৬৭ – বিখ্যাত আইরিশ লেখক জোনাথন সুইফট আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনে জন্মগ্রহণ করেন।

১৭৫৬ – আর্নেস্ট চলাডনি, তিনি ছিলেন জার্মান পদার্থবিজ্ঞানী ও লেখক।

১৮১৭ – থিওডর মম্সেন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান আইনজ্ঞ, ঐতিহাসিক ও পণ্ডিত।

১৮৩৫ – স্যামুয়েল ল্যাঙ্গহোর্ণ ক্লিমেন্স, তিনি ছিলেন একজন মার্কিন রম্য লেখক, সাহিত্যিক ও প্রভাষক। তিনি অবশ্য ‘মার্ক টোয়েইন’ নামে বেশি পরিচিত।

১৮৫৮ – স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু, তিনি ছিলেন বাংলাদেশের একজন সফল বিজ্ঞানী।

আরো পড়তে পারেন:  ৩১ অক্টোবর: টিভিতে আজকের খেলা সূচি

১৮৬৯ – নিল্স গুস্তাফ দালেন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইডিশ পদার্থবিজ্ঞানী ও প্রকৌশলী।

১৮৭৪ – উইনস্টন চার্চিল, তিনি ছিলেন ইংরেজ রাজনীতিবিদ ও লেখক।

১৮৮৯ – এডগার ডগলাস আদ্রিয়ান, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ শারীরবিজ্ঞানী ও একাডেমিক।

১৯০৮ – বুদ্ধদেব বসু, তিনি ছিলেন বিশ শতকের বাঙালি কবি।

১৯১৫ – হেনরি টাউব, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী কানাডিয়ান বংশোদ্ভূত আমেরিকান রসায়নবিদ ও একাডেমিক।

১৯৩৭ – রিডলি স্কট, তিনি ইংরেজ পরিচালক, প্রযোজক তিনি উৎপাদন ডিজাইনার।

১৯৪৩ – টেরেন্স মালিক, তিনি আমেরিকান পরিচালক, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।

১৯৪৪ – জর্জ গ্রাহাম, তিনি স্কটিশ ফুটবল খেলোয়াড় ও ম্যানেজার।

১৯৫৩ – নন্দিত সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী।

১৯৬৫ – আল্ডাইর, তিনি সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।

১৯৭৮ – গায়েল গার্সিয়া বেরনাল, তিনি মেক্সিক্যান অভিনেতা ও পরিচালক।

১৯৮৪ – নিগেল ডি জং, তিনি ডাচ ফুটবল।

১৯৮৮ – ফিলিপ হিউজ, তিনি ছিলেন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার।

১৯৯১ – মোহাম্মাদ নাসির হোসেন, তিনি বাংলাদেশী ক্রিকেটার।

মৃত্যু:

১০১৬ – এডমন্ড আয়রনসিডে, তিনি ছিলেন ইংরেজ রাজা।

১৭১৮ – ফ্রান্সের রাজা দ্বাদশ চার্লস যুদ্ধে নিহত হন।

১৭৫৯ – মোগল সম্রাট দ্বিতীয় আলমগীর নিজ মন্ত্রীর হাতে নিহত হন।

১৯০০ – অস্কার ওয়াইল্ড, তিনি ছিলেন আইরিশ প্রাবন্ধিক, ঔপন্যাসিক, নাট্যকার ও কবি।

১৯৩৩ – কবি মোজাম্মেল হক।

১৯৩৫ – ফার্নান্দো পেশোয়া, তিনি ছিলেন পর্তুগিজ কবি, দার্শনিক ও সমালোচক।

১৯৩৮ – ইরানের সংগ্রামী ও স্বাধীনচেতা আলেম আয়াতুল্লাহ সাইয়েদ হাসান মোদাররেস দেশটির তৎকালীন স্বৈরাচারি রাজা রেজা খানের অনুচরদের হাতে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর কাশমারে শাহাদত বরণ করেন।

১৯৫৩ – ফ্রান্সিস পিকাবিয়া, তিনি ছিলেন ফরাসি চিত্রশিল্পী ও কবি।

১৯৭৯ – যেপপো মার্কস, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা ও গায়ক।

১৯৮৪ – অভিনেত্রী ও সঙ্গীতশিল্পী ইন্দুবালা দেবী।

আরো পড়তে পারেন:  করোনাভাইরাস: যেসব ভুয়া স্বাস্থ্য পরামর্শে কান দেবেন না

১৯৮৮ – মিশরের প্রখ্যাত ক্বারী আবদুল বাসেত মোহাম্মাদ আবদুস সামাদ।

১৯৮৯ – আহমাদউ আহিদজ, তিনি ছিলেন ক্যামেরুনের রাজনীতিবিদ ও ১ম রাষ্ট্রপতি।

১৯৯৪ – গায় ডেবরড, তিনি ছিলেন ফরাসি তাত্ত্বিক ও লেখক।

১৯৯৮ – আবদুল্লাহ আল মুতী শরফুদ্দিন, তিনি ছিলেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, বিজ্ঞান লেখক ও বিজ্ঞান কর্মী।

২০১২ – ইন্দ্র কুমার গুজরাল, তিনি ছিলেন ভারতীয় রাজনীতিবিদ ও ১২ তম প্রধানমন্ত্রী।

২০১৭ – একজন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ, টেলিভিশন উপস্থাপক এবং ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক।

 

সূত্র: যুগান্তর

 

আরো পড়ুন:

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  করোনার তথ্য গোপন করে সরকার অমার্জনীয় অপরাধ করেছে: বিএনপি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *