১৩ কোম্পানির পণ্য নিষিদ্ধ

 

পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ১৩ কোম্পানির পণ্য বিক্রি, বিতরণ, সংরক্ষণ নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। এসব কোম্পানির লাইসেন্সও বাতিল করা হয়েছে।

বিএসটিআইর পরিচালক সাজ্জাদুল বারী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

যেসব কোম্পানির বিভিন্ন পণ‌্য নিম্নমানের পাওয়া গেছে সেগুলো হলো- আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের ফার্ম ফ্রেশ ঘি, শক্তি এডিবল প্রাইভেট লিমিটেডের শক্তি ফর্টিফাইড সয়াবিন অয়েল, কিচেনা এ কে খান ফুড অ্যান্ড বেভারেজের সেফ ফর্টিফাইড সয়াবিন অয়েল, বিসমিল্লাহ সল্ট ফ্যাক্টরির উট আয়োডিনযুক্ত লবণ, জনতা সল্ট মিলের নজরুল আয়োডিনযুক্ত লবণ, জে কে ফুড প্রোডাক্টের মদিনা লাচ্ছা সেমাই, মডার্ন কসমেটিকস অ্যান্ড হারবাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের মডার্ন স্কিন ক্রিম, জি এম কেমিক্যাল ওয়ার্কসের জিএম স্কিন ক্রিম, নিউ চট্টলা (প্রা.) লিমিটেডের এরাবিয়ান স্পেশাল ঘি, রেভেন ফুড কোম্পানি লিমিটেডের রেভেন লাচ্ছা সেমাই, খাজানা মিঠাই লিমিটেডের এর লাচ্ছা সেমাই, খাজানা ঘি ও চানাচুর, প্রমি অ‌্যাগ্রো ফুড লিমিটেডের প্রমি হলুদের গুড়া, ইফাদ সল্ট অ্যান্ড কেমিক্যাল লিমিটেডের ইফাদ আয়োডিনযুক্ত লবণ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, এই ১৩ কোম্পানি এসব পণ্যের বিজ্ঞাপন কোনো মাধ্যমে প্রচার করতে পারবে না।

বিএসটিআই পরিচালক প্রকৌশলী সাজ্জাদুল বারী জানান, তাদের সার্ভিল্যান্স টিমের মাধ্যমে খোলাবাজার থেকে বিভিন্ন পণ্যের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পরীক্ষার পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নতুনভাবে লাইসেন্স গ্রহণ ছাড়া সংশ্লিষ্ট উৎপাদনকারী, সরবরাহকারী, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের এসব পণ্য বিক্রি, বিতরণ, সংরক্ষণ ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন প্রচার থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সূত্র: বিডি জার্নাল

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *