সিদ্ধান্ত চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছিলেন রুবানা

 

করোনাভাইরাসের কারণে দেশের রপ্তানিমুখী পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষ শ্রম মন্ত্রণালয়ের কাছে সুনির্দিষ্ট দিকনির্দেশনা চেয়েও এ ব্যাপারে কোনো সাড়া পাননি। গত ২০ মার্চ বিজিএমইএ’র পক্ষ থেকে বিজিএমইএ’র সভাপতি ড. রুবানা হক এ সংক্রান্ত একটি চিঠি পাঠান শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের কাছে। এতে উল্লেখ  করা হয়, পোশাক মালিকদের অধিকাংশ বায়াররা ফেব্রিক্স কাটিং না করতে, কাটিং করা হলে তা সুইং না করতে এমনকি প্রস্তুতকৃত পোশাক থাকলে এ মুহূর্তে রপ্তানি না করতে তাদের জানিয়েছেন। চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, করোনাভাইরাসের দেশের কারণে ১৭১টি কারখানার বিপরীতে প্রায় ৩৮০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের রপ্তানি আদেশ বাতিল করা হয়েছে। আবার ভাইরাস প্রতিরোধে এলাকাভিত্তিক লকডাউনের ব্যবস্থা শুরু করা হয়েছে। এ অবস্থায় কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া হলে তা সবার জন্য মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি করবে। এ অবস্থায় করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এ দুর্যোগ থেকে পোশাকশিল্পকে রক্ষা করতে সুনির্দিষ্ট দিকনির্দেশনা, সিদ্ধান্ত এবং সহযোগিতা প্রদান করার জন্য শ্রম মন্ত্রণালয় বরাবর বিনীত অনুরোধ করা হয়। কিন্তু মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি বলে জানা গেছে।

 

সূত্র: বিডি প্রতিদিন

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  ট্রাম্পের জনপ্রিয়তায় ধস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *