লিভারে বিষ জমা হলে বোঝার উপায় কি?

 

প্রতিনিয়ত বাতাস, খাবার এবং পরিবেশ থেকে আমাদের শরীরে টক্সিক বা বিষ জমা হচ্ছে।

আমাদের লিভার এর কাজ হচ্ছে এসব বিষ বের করে দিয়ে শরীরের কার্যকারিতা বজায় রাখা।

এক্ষেত্রে লিভার যদি সঠিক ভাবে কাজ না করে তাহলে এসব টক্সিক বা বিষ শরীরে জমা হয়ে নানাবিধ রোগের উপসর্গ দেখা দেয়।

লিভারে টক্সিক বা বিষ জমা হলে কিছু উপসর্গের মাধ্যমে তা প্রকাশ পায়। যেমন-

১. লিভারে টক্সিক জমা হলে ত্বকে সমস্যা দেখা দেয়। ত্বকের সমস্যা বেড়ে গেলে বুঝতে হবে লিভারে কোনও ধরনের সমস্যা হয়েছে।

২. যদি ব্রাশ করার সময় দাঁত দিয়ে রক্ত পড়ে তাহলে বুঝতে হবে লিভারে বিষ জমা হয়েছে।

৩. যদি পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে নারীদের হরমোনের ভারসাম্যজনিত সমস্যা হয় তাহলে বুঝতে হবে লিভার ভাল ভাবে কাজ করতে পারছে না। হরমোনের সমস্যা হলে সাধারণত ঘন ঘন মুড পরিবর্তন হয়, ওজন ওঠা-নামা করে এবং মানসিক চাপ বেড়ে যায়।

৪. শরীরে অতিরিক্ত ঘাম হলে বুঝতে হবে লিভার ঠিক মতো কাজ করছে না। যেহেতু লিভার শরীরের অন্যতম বড় একটি অঙ্গ এ কারণে অতিরিক্ত গরম হলে লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।তখন ঘামের মাধ্যমে শরীর ঠাণ্ডা হয়।

৫. লিভারে টক্সিক জমা হলে মুখে দুর্গন্ধ হয়।

৬. লিভারের কার্যকারিতা ঠিক না থাকলে অতিরিক্ত ক্লান্ত লাগে। তখন মাথা ঘোরোনো, দুর্বল লাগা এসব উপসর্গ বেড়ে যায়।

সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড

লাইফস্টাইল সম্পর্কিত আরো বিষয় জানুন এখানে

এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে ফেইসবুক পেজটি লাইক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *