‘রোহিঙ্গারা নিরাপত্তা ও সুরক্ষার আশ্বাস না পেলে সাক্ষ্য নেওয়া কঠিন হবে’

                                      কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প। ছবি: এএফপি

 

‘রোহিঙ্গারা নিরাপত্তা ও সুরক্ষার আশ্বাস না পেলে কক্সবাজার সফরে আসা ‘ইন্ডিপেন্ডেন্ট কমিশন অফ ইনকোয়ারি’ দলের সাক্ষ্য নেওয়া কঠিন হয়ে পড়বে বলে মন্তব্য করেছেন কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালাম।

সোমবার দুপুরে কক্সবাজার শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে ‘ইন্ডিপেন্ডেন্ট কমিশন অফ ইনকোয়ারি’ প্রতিনিধিদলের বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেছেন, ‘এজন্য বৈঠকে আমরা প্রতিনিধিদলকে বলেছি যে সাক্ষী দেওয়া রোহিঙ্গাদের সুরক্ষার কথা, নিরাপত্তার কথা। প্রতিনিধিদলও আমাদের আশ্বস্থ করেছেন তাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করবে’।

প্রতিনিধিদলটি মঙ্গলবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন এবং ১৫০ থেকে ২০০ জন রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলবেন। এরপর আসবেন ‘এভিডেন্স কালেকশন এবং ভেরিফিকেশন’ নামের আরও একটি প্রতিনিধিদল’।

বৈঠকে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও আরআরআরসি অফিসের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন সংস্থার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিকেলে প্রতিনিধিদলটি ‘ইউএনএইচসিআর’র প্রতিনিধিদলের সঙ্গেও বৈঠক করেছেন।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার বিমান বন্দর হয়ে প্রতিনিধিদলটি কক্সবাজারে পৌঁছান। মঙ্গলবার সকালে উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করার কথা রয়েছে।

‘ইন্ডিপেন্ডেন্ট কমিশন অফ ইনকোয়ারি’ দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ফিলিপাইনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোজারিও মানালো।

কমিশনের অন্য সদস্যরা হলেন, মিয়ানমারের সাংবিধানিক ট্রাইব্যুনালের সাবেক চেয়ারম্যান মিয়া থেইন, জাতিসংঘের জাপানের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি কেনজো ওশিমা এবং ইউনিসেফের সাবেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ড. অন তুন থেট।

উল্লেখ্য, রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিষয়টি তদন্তের জন্য ‘ইন্ডিপেন্ডেন্ট কমিশন অফ ইনকোয়ারি’ গঠন করেছে মিয়ানমার সরকার। ওই কমিশনের একটি প্রতিনিধিদল চার দিনের সফরে গত শনিবার বাংলাদেশে আসে। দলটি এমন একটি সময়ে বাংলাদেশে এলো, যখন ২২ আগস্ট রোহিঙ্গাদের প্রথম দলটি তাদের মাতৃভূমি রাখাইনে প্রত্যাবাসিত হতে পারে।

এছাড়াও আগামী মাসে ‘এভিডেন্স কালেকশন এবং ভেরিফিকেশন’ নামের আরও একটি টিম আসার সম্ভাবনা রয়েছে। তারা রাখাইনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগগুলো তদন্ত করবেন এবং দোষী ব্যক্তিদের দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করা।

সূত্র- দেশ রূপান্তর

আরো পড়তে পারেন:  থানায় নারী পুলিশের নাচের ভিডিও ভাইরাল

দেশের আরো প্রতি মূর্হর্তের খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *