যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে যা বললেন খামেনি

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। ছবি: আল আরাবিয়া

 

করোনাভাইরাস বিরোধী লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া সহায়তার প্রস্তাবকে ‘ভণ্ডামি’ অভিহিত করে তা ফিরিয়ে দিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি।

রোববার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, মার্কিনীরা যখন করোনাভাইরাস তৈরি করার দায়ে অভিযুক্ত তখন কোনো সুস্থ বিবেকবান মানুষ তাদের থেকে সাহায্য গ্রহণ করতে পারে না।

যুক্তরাষ্ট্র ওষুধসহ অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রী পাঠাতে পারে বলে মার্কিন কর্মকর্তারা একাধিকবার যে বক্তব্য দিয়েছেন সেদিকে ইঙ্গিত করে খামেনি বলেন, মার্কিনীদের থাবার্তা অত্যন্ত বিস্ময়কর। কারণ, তারা নিজেরাই প্রচণ্ডভাবে করোনা মোকাবিলার ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রীর অভাবে রয়েছেন। কোনো কোনো মার্কিন কর্মকর্তা প্রকাশ্যে এই অভাবের কথা স্বীকারও করেছেন। কাজেই তাদের যদি কিছু ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী থেকে থাকে তা দিয়ে তারা মার্কিন জনগণের সেবা করুক; আমাদের কোনো প্রয়োজন নেই।

তিনি আরও বলেন, মার্কিনীরা হয়তো এমন ওষুধ পাঠাতে চায় যাতে ইরানে এই ভাইরাস স্থায়ীভাবে ছড়িয়ে যায়। অথবা এটাও হতে পারে যে, তারা ইরানি জনগণের ওপর করোনাভাইরাস কতটা কাজ করেছে তা পরীক্ষা করার উদ্দেশ্যে কিছু বিশেষজ্ঞ পাঠাতে চায়; কারণ বলা হচ্ছে, এই ভাইরাসের একটি অংশ তৈরি করা হয়েছে শুধুমাত্র ইরানি জনগণকে টার্গেট করে। কাজেই তারা তাদের হাতে তৈরি ভাইরাসের প্রভাব যাচাই করে নিজেদের তথ্যভাণ্ডার সমৃদ্ধ এবং ইরানের বিরুদ্ধে শত্রুতা আরো বাড়াতে চায়।

সূত্র: ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আইআরআইবি,  যুগান্তর

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  করোনাভাইরাস শরীরের ভেতরকে যেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে (ভিডিও)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *