যশোরে টাকা চাওয়ায় স্বামী স্ত্রীকে মারপিট আদালতের নির্দেশে মামলা নিল পুলিশ

পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে যশোর সদর উপজেলার বড় মেঘলা গ্রামের খাঁ পাড়ায় স্বামী স্ত্রীকে মারপিট ও হামলার ঘটনায় আদালতে দায়ের করা পিটিশন থানায় নিয়মিত মামলা হিসাবে রেকর্ড করা হয়েছে। ওই গ্রামের মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে হায়দার আলী (৪৮) তার দুই দুইসহ তিনজনকে আসামি করে মামলাটি করেন।

মামলায় আসামিরা হচ্ছে হায়দার আলীর দুই ভাই মাহবুবুর রহমান (৪০) ও হাবিবুর রহমান (৫০) এবং আমজাদ আলীর ছেলে মিন্টু হোসেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে প্রায় ১০ বছর আগে আমজাদ আলী ৬২ হাজার টাকা ধার হিসাবে নেয় তার কাছ থেকে। টাকা নেয়ার সময় কথা থাকে ৬ মাসের মধ্যে পরিশোধ করবে। কিন্তু পরিশোধ না করে দিনের পর দিন বছরের পর বছর ঘুরাতে থাকে। গত ৩ মে রাত ১০টার দিকে তিনি তার বাড়ির সামনে দাড়িয়ে ছিলেন। সে সময় আমজাদ হোসেনকে পেয়ে পাওনা টাকা চান। কিন্তু আমজাদ তাকে গালিগালাজ করে। সাথে সাথে অন্যান্য আসামিরা তার চারপাশ দিয়ে ঘিরে ধরে। এবং লোহার রড দিয়ে মারপিট করে। সারা শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারপিটে জখম করে। সে সময় তার স্ত্রী পপি সুলতানা সেখানে গেলে তাকেও মারপিট জখম করা হয়। পড়নের কাপড় টেনে শ্লীলতাহানী ঘটায়। কানের দুল নিয়ে যায়। দা দিয়ে কুপিয়ে বাড়ির গেটের ক্ষতি করে। পরে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে আসামিরা ফের হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে তিনি যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন।

এই ঘটনায় গত ১৫ মে তিনি আদালতে পিটিশন দাখিল করলে পুলিশ গত তদন্ত করে সত্যতা পায় এবং রোববার তা থানায় মামলা হিসাবে রেকর্ড করে।

Source link

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

আরো পড়তে পারেন:  ইন্ডিয়ান অব দ্য ইয়ার’ হলেন সানিয়া মির্জা
যশোরে প্লাস্টিকের ভাঙ্গারির দোকানে অগ্নিকান্ডের ঘটনায়
/ সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  আফগানিস্তানে খেলার সময় মাইন বিস্ফোরণে ৯ শিশু নিহত