মার্কিন দূতাবাসে হামলার দায় অস্বীকার, প্রতিশোধের হুমকি ইরানের

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে সহিংস বিক্ষোভের দায় অস্বীকার করেছে ইরান। এসময় যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে প্রতিশোধেরও হুশিয়ারি দিয়েছে তেহরান।

এর আগে উপসাগরীয় দেশটিকে দায়ী করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, এই হামলার ঘটনায় ইরানকে দায়ী করা হবে।

ইরানি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাভি বলেন, অন্তত ২৫ ইরাকিকে বর্বর হামলা চালিয়ে হত্যার প্রতিবাদে ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে সেখানকার সাধারণ মানুষের বিক্ষোভের দায় ইরানের ওপর চাপানোর মতো অবাক করা স্পর্ধা দেখিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

ইরাক ও সিরিয়ায় মিলিশিয়া ঘাঁটিতে মার্কিন বিমান হামলার ক্ষোভ জানাতে বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিয়েছে ইরান-সমর্থিত একটি গোষ্ঠী। বাগদাদে একটি মার্কিন নিরাপত্তা চৌকিতে তারা অগ্নিসংযোগ ও পাথর নিক্ষেপ করেছেন।

ইরানি বিবৃবিতে বলা হয়, আমাদের দেশের বিরুদ্ধে মার্কিন কর্মকর্তাদের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মুসাভি। তিনি বলেন, মার্কিন কর্মকর্তাদের ভুল হিসাব ও কুপরামর্শমূলক প্রতিক্রিয়ার বিরুদ্ধে আমরা সতর্ক। মধ্যপ্রাচ্যের ধ্বংসাত্মক নীতি পুনর্বিবেচনা করতে হোয়াইট হাউসকে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে ইরানকে প্রতিরোধ করতে লাখ লাখ ইরাকির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ইরান-সমর্থিত মিলিশিয়াদের ওপর মার্কিন বিমান হামলায় কয়েক ডজন যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। এরপরেই ওয়াশিংটন-তেহরানের ছায়াযুদ্ধের কেন্দ্রভূমিতে পরিণত হয়েছে ইরাক।

মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ইরাকের যেসব লোক ইরানি প্রভাব ও নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকতে চাচ্ছেন না, যারা স্বাধীনতা চান। এখন সময়টি তাদেরই।

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে ইরান-সমর্থিত কয়েক ডজন শিয়া মিলিশিয়া দূতাবাসে ঢুকে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছেন।

এক টুইট বার্তায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, আমেরিকার একজন বেসামরিক ঠিকাদারকে হত্যা করেছে ইরান। আমরা জোরালোভাবে সাড়া দিয়েছি এবং ভবিষ্যতেও সাড়া দিয়ে যাব।

তিনি বলেন, এখন মার্কিন দূতাবাসে হামলা চালাচ্ছে ইরান। এই হামলার জন্য তারা দায়বদ্ধ থাকবে।

এদিকে বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে মঙ্গলবার হামলা ভাঙচুর চালিয়েছে ইরান-সমর্থিত মিলিশিয়া গোষ্ঠীর সমর্থকরা। যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় কয়েক ডজন মিলিশিয়া যোদ্ধা নিহত হওয়ার পর ক্ষুব্ধ বিক্ষোভকারীরা এ সময় আমেরিকার ধ্বংস কামনা করে স্লোগান দেন।

আরো পড়তে পারেন:  ঢাকায় বিএনপির নতুন নেতৃত্বের তাগিদ

সূত্র: যুগান্তর

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *