মহানবীর (সা.) ছবি দেখিয়েছে চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন!

 

ফ্রান্সে হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের জেরে সারাবিশ্বের মুসলমানরা বেজায় চটে আছে। এরই মধ্যে চীনের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম চায়না সেন্ট্রাল টেলিভিশনে (সিসিটিভি) সম্প্রচার করা একটি ভিডিও ফুটেজ ব্যাপকহারে ভাইরাল হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যমে দেখানো সেই ভিডিও উইঘুর অ্যাক্টিভিস্ট আর্সলান হিদায়াত টুইটারে পোস্ট করেছেন। ওই ভিডিওতে দেখানো হয়, আরব থেকে আসা একদল প্রতিনিধি চীনের অ্যাম্বাসেডরের হাতে মহানবীর (সা.) একটি চিত্র দিচ্ছে। এমনকি ওই দৃশ্যে একটি ছবি মহানবীর হিসেবেও দেখানো হয়।

ভিডিওটি ইন্টারনেটে পোস্ট হতেই ভাইরাল হয়ে গেছে। হিদায়াত লিখেছেন, ওই ভিডিওতে আরব প্রতিনিধির চরিত্রে অভিনয় করা ব্যক্তি বলেছেন, আমাদের দেশের ঈশ্বর মুহাম্মদের ছবি এটি।

ভিডিওটি ছড়িয়ে যাওয়ার পর অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মুসলিমরা যেভাবে পণ্য বয়কট করে চাপ সৃষ্টি করেছে, একই কাজ চীনের ব্যাপারেও করবে কিনা।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর বক্তব্যের পর মুসলিমরা সে দেশের পণ্য বয়কট করতে শুরু করে। পরে নিজের বক্তব্য সম্পর্কে ভুল তথ্য ছড়িয়েছে দাবি করে মুসলিমদের অনুভূতি সম্পর্কে জ্ঞান থাকার কথা বলেছেন ম্যাখোঁ।

তবে এই ভিডিওর ব্যাপারে এখনো চীনের দায়িত্বশীল কোনো ব্যক্তির মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এতে করে অনেকেই মনে করছেন, চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে মহানবীর (সা.) ছবি প্রকাশে কোনো বাধা নেই।

যদিও মহানবীর (সা.) কোনো ছবি অতীতে আঁকা হয়েছে বলে শোনা যায় না এবং বর্তমানে তার ছবি বা ব্যাঙ্গচিত্র আঁকা স্পষ্টভাবে ধর্ম অবমাননা।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের জেরে সারাবিশ্বের মুসলমানরা ফ্রান্সের পণ্য বয়কট করছে। এবার চীনের কর্মকাণ্ডে তাদের পণ্য বয়কট করা হবে কি না তা নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে।

সূত্র : ওপিইন্ডিয়া সূত্র: কালের কণ্ঠ

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

আরো পড়তে পারেন:  নান্দনিক এক মসজিদ উপহার!
মার্চের শুরু থেকে সংক্রমণ বাড়ছিল, সরকার শুধু সংখ্যা গুনছিল
/ জাতীয়, সব খবর
DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  চিঠি নিয়ে তোলপাড়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *