ভোটারদের হুমকি দিয়ে ইরানের মেইলে যুক্তরাষ্ট্রে আতঙ্ক

মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থীর সমর্থক ভোটারদের কাছে হুমকি দিয়ে ইমেইল পাঠাচ্ছে ইরান।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র ১৩ দিন আগে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার কাছ থেকে এমন ঘোষণা এসেছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

ইমেইলগুলো কট্টরপন্থী ট্রাম্প সমর্থক একটি গ্রুপের কাছ থেকে পাঠানো হয়েছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক জন র‍্যাটক্লিফ জানিয়েছেন।

অস্থিরতা উসকে দেয়ার উদ্দেশ্যেই ইমেইলগুলো পাঠানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

র‍্যাটক্লিফ বলেন, ইরান যে ‘স্পুফ ইমেইলগুলো’ পাঠিয়েছে, সেগুলো ট্রাম্পের কট্টরপন্থী সমর্থক গ্রুপ ‘প্রাউড বয়েজ’-এর নাম ব্যবহার করে ভোটারদের ভয় দেখাতে, বিশৃঙ্খলা উসকে দিতে এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সুনাম ক্ষুণ্ণ করতে পাঠানো হয়েছে।

ইরানের পাশাপাশি রাশিয়ার কাছেও কিছু ভোটারের তথ্য আছে বলে জানান র‍্যাটক্লিফ। তবে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা ইরানের মত রাশিয়ার পক্ষ থেকে একই ধরণের কর্মকাণ্ড লক্ষ্য করেননি বলে জানান তিনি।

এর আগে ২০১৬ এর নির্বাচনের সময়ও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো জানিয়েছিল যে, ক্রেমলিন সমর্থিত হ্যাকাররা সাইবার হামলা ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়া তথ্য ছড়ানোর মাধ্যমে হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনী প্রচারণা ব্যাহত করার চেষ্টা করেছিল।

ইরান এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের সিস্টেম সফলভাবে হ্যাক করতে পারেনি।

সম্প্রতি পাঠানো সন্দেহজনক ইমেইলগুলো একাধিক রাজ্যের ডেমোক্র্যাট ভোটারদের কাছে পাঠানো হয়েছে। সেসব মেইলে তাদের ট্রাম্পকে ভোট দেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

মার্কিন নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে বিদেশি সংস্থা ভোট গ্রহণে হস্তক্ষেপ এবং নির্বাচনকে ঘিরে ভুয়া তথ্য ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা আগে থেকেই ছিল মার্কিন কর্তৃপক্ষের।

তাই ভোটগ্রহণের আগে গোয়েন্দা সংস্থার এই অস্বাভাবিক সংবাদ সম্মেলনকে মার্কিন সরকারের সে আশঙ্কার পক্ষে সমর্থন হিসেবে মনে করা হচ্ছে। সূত্র: যুগান্তর

 

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  বিশ্বব্যাপী মুসলমানেরা টার্গেট কেন, উৎস কোথায়?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *