ভারতের দিকে তাকান, কত নোংরা: ট্রাম্প

ভারত ও চীনের বাতাসকে নোংরা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার ডেমোক্র্যাটদলীয় প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের জলবায়ু মোকাবেলা পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করতে গিয়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাখ্যান করে নিয়ে আসা নিয়ে সমালোচনার জবাব দিতে ট্রাম্প এমন মন্তব্য করেন। তবে ভারতের বাতাস নিয়ে ট্রাম্পের বক্তব্যে দেশটিতে কড়া প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

বিবিসি, এএফপি ও এনডিটিভির খবরে এসব তথ্য মিলেছে।

বৃহস্পতিবার ন্যাশফেলেতে বাইডেনের সঙ্গে চূড়ান্ত বিতর্কে নেমে তিনি বলেন, চীনের দিকে তাকান, দেশটি কতটা নোংরা। রাশিয়ার দিকে তাকান। ভারতের দিকে তাকান, এটি নোংরা। তাদের বাতাস নোংরা।

‘যখন দেখলাম, আমাদের কোটি কোটি ডলার খরচ করতে হচ্ছে এবং আমাদের ওপর অন্যায় আচরণ করা হচ্ছে। তখন প্যারিস চুক্তি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিলাম।’

এই চুক্তির জন্য লাখ লাখ কর্মসংস্থান, হাজার কোম্পানিকে ‘বলি’ দিতে পারবো না বলেও মন্তব্য করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্পের অভিযোগ, টেক্সাস ও ওকলাহোমার মতো তেলসমৃদ্ধ রাজ্যগুলোর জন্য বাইডেনের জলবায়ু পরিকল্পনা একটি অর্থনৈতিক বিপর্যয়।

কিন্তু বাইডেন বলেন, জলবায়ুর পরিবর্তন মানুষের জন্য অস্তিত্বের সংকট। কাজেই এই সমস্যার মোকাবেলায় আমাদের নৈতিক বাধ্যবাধকতা আছে।

তবে ভারতের বাতাস নিয়ে ট্রাম্পের মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া এসেছে ভারত থেকে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই বক্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানাতে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতিও আহ্বান জানিয়েছেন কেউ কেউ।

আবার অনেকেই এ বিষয়টিতে নজর দিতে মোদির প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। রাজধানী নয়াদিল্লির বাতাস বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে জঘন্য বলেও ভারতীয়দের কেউ কেউ স্বীকার করছেন।

সম্প্রতি শহরটির বাতাসের মান ভয়াবহ অবস্থায় চলে গেছে। অধিবাসীরা শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়ারও অভিযোগ করেছেন।

 

সূত্র: যুগান্তর

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

আরো পড়তে পারেন:  যুক্তরাষ্ট্রে আর লকডাউন দরকার নেই : ট্রাম্প
ট্রাম্পের ‘দুঃখ’
/ আন্তর্জাতিক, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  সিনহা হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন: পুলিশের কর্মকাণ্ড ছিল হঠকারী, অপেশাদারি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *