বিয়ে করতে যাচ্ছেন তাহসান!

 

অভিনেতা, গায়ক তাহসান খান ও অভিনেত্রী মিথিলা ভালোবেসে সুখের সংসার সাজিয়েছিলেন। সেই সংসারের ইতি টানেন দীর্ঘ ১১ বছর পর। বিচ্ছেদের পর নতুন করে কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে ঘর বেঁধেছেন মিথিলা। অন্যদিকে তাহসান এখনো সিঙ্গেল। কিন্তু গুঞ্জন উঠেছে তিনিও নাকি বিয়ে করতে চলছেন!

কয়েকদিন ধরেই মিডিয়া পাড়ায় এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।  এমনটিও শোনা যাচ্ছে নতুন করে নাকি প্রেমেও জড়িয়েছেন তিনি। এখানেই শেষ নয়। অনেকের দাবি, কিছু দিন আগে রাজধানীর বনানীর একটি রেস্তরাঁয় এক সংবাদ পাঠিকার সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটাতে দেখা যায় তাকে।

সে খবর প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর চর্চা শুরু হয়েছে। ওই মানুষটিই যে তাহসানের জীবনের ‘স্পেশাল পার্সন’-দাবি করছেন অনেকেই। যদিও তাহসান বর্তমানে দেশের বাইরে থাকায় এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েও কোনো সাড়া মেলেনি।

যদিও গত বছরের শেষের দিকে তাহসান বলেছিলেন, নতুন করে জীবন সাজাতে হবে। তবে এটা সৃষ্টিকর্তাই ঠিক করবেন। আর পরিবারের চাপ আছে। বাবা-মা অনেকদিন ধরেই বিয়ের জন্য প্রেশার দিচ্ছেন। আমি বলেছি, তোমাদের দেখার কাজ, তোমরা পাত্রী দেখো।

তাহলে কি উক্ত সংবাদ পাঠিকাই হতে যাচ্ছে তাহসানের ঘরণী! এর উত্তর আপাতত জানা নেই। হয়তো দেশে ফিরে তাহসান এ বিষয়ে তার অবস্থান স্পষ্ট করবেন। ঠিক তখনই জানা যাবে উক্ত গুঞ্জন গুজব না সত্য।

তবে তাহসান সে সময় আরো জানিয়েছিলেন, তার ব্যক্তিগত জীবন আর কখনো প্রকাশ করবেন না। যে নতুন করে তার জীবনে আসবে তার প্রাইভেসিটাও গুরুত্বপূর্ণ। পাবলিক জানলেই, নতুন বউ নিয়ে আবার ফেসবুক-ইউটিউবে নতুন গসিপ শুরু হবে! তাই যা কিছু করবেন তার সবকিছুই গোপন থাকবে।

এরপর প্রশ্ন রয়েই যায়, যদি তাহসান মনের মানুষ পেয়েও যান, তার সঙ্গে যদি ঘরও বাঁধেন তাহলে কি গোপনেই রাখবেন সেই খবর নাকি ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করবেন।

আরো পড়তে পারেন:  আরব পুরুষদের বিয়ে করে ইসলাম গ্রহণ করছেন ইসরাইলের নারীরা

 

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  ম্যাকরনের সঙ্গে ফোনালাপ, ইউক্রেনকে ভয়াবহ পরিণতির হুঁশিয়ারি পুতিনের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *