বিয়ের পরেই বললেন, আমিও ভার্জিন ছিলাম না!

 

মারাঠি তারকা নেহা পেন্ডসে। ক্যারিয়ারে ‘মে আই কাম ইন ম্যাডাম’সিনেমা করে দারুণ আলোচনায় এসেছিলেন তিনি। সম্প্রতি এ নায়িকা গাঁটছড়া বেঁধেছেন রাজস্থানের রাজপুত পরিবারের ছেলের সঙ্গে। ঐতিহ্যবাহী মারাঠি রীতিতে ৫ জানুয়ারি তাদের বিয়ে হয়।

এরপরই সমালোচনার মুখে পড়েছেন নায়িকা নেহা পেন্ডসে। অবশ্য তার একটি কারণও রয়েছে। তার স্বামী আগেও বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। তাও একবার নয়, একে একে দুবার বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন তিনি। পরে প্রথম এবং দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীদের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নেহার সঙ্গে তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসেন স্বামী শার্দুল।

এনিয়ে ট্রোলের মুখে পড়েছেন নায়িকা। অনেকেই বলছেন, দুই নারীর সংসার করা স্বামীকে বিয়ে করেছেন নেহা। আবার অনেকেই বলছেন, নায়িকার জীবনে এমন স্বামীই জোটে।

তবে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করে দিয়েছেন নেহা পেন্ডসে। বলেছেন, দুই নারীর স্বামীর সঙ্গে আমার স্বামী সংসার করেছেন তো কী হয়েছে? আমিওতো ভার্জিন না! এতে সমস্যা কোথায়? সে বিবাহিত ছিল আর আমিও ভার্জিন ছিলাম না! আমি আগেই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত ছিলাম। এতে আমাদের সমস্যা না থাকলে আপনাদের সমস্যা কোথায়?

ব্যাস, নেহার এমন মন্তব্যে মুখ বন্ধ হলো সমালোচকদের। নেহা আরও বলেন, আমরা একে অপরের অতীতটা জেনে সেটিকে সম্মান করি। এ নিয়ে কথা বলতে আমাদের কোনও লজ্জা-ভয় নেই। শুরুতে এই সব কথাই তো আমাদের সম্পর্কের ভিত তৈরি করেছে।

 

নেহার বিয়েতে উপস্থিত ছিল শার্দুলের আগের পক্ষের দুই মেয়েও। তিনি নিজের বিয়েতে সন্তানদের সঙ্গেও বেশ আনন্দ উপভোগ করেছেন।

এর আগে দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন নেহা ও শার্দুল। পরে তারা গাঁটছড়া বাঁধেন। প্রসঙ্গত, প্রায় দশ বছর আগে শার্দুল বিয়ে করেছিলেন দ্বিতীয় স্ত্রীকে। তার দুই মেয়ে রয়েছে।

সূত্র: আমাদের সময়

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

আরো পড়তে পারেন:  রাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ব্ল্যাকমেইল: মাহফুজ ঠাণ্ডা মাথার অপরাধী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *