ফেসবুক লাইভে এসে এক মাসের সন্তানের মুখে সিগারেটের ধোঁয়া, অতঃপর…

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসির চাতানুগার বাসিন্দা তাইব্রেশা সেক্সটন। ২৪ বছর বয়সী ওই নারীর রয়েছে এক মাস বয়সী এক শিশু। তিনি ফেসবুক লাইভে এসে ওই শিশুকে নিয়ে এক কাণ্ড করে বসলেন। আর তাতেই শিশু নির্যাতন ও দুর্ব্যবহারের অভিযোগে সেক্সটনকে গ্রেপ্তার করে স্থানীয় পুলিশ। 

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, নিজের মুখে সিগারেট গুঁজে লাইটার দিয়ে জ্বালাচ্ছেন সেটি। আর তার বাঁ-হাতে রয়েছে এক মাসের ছোট্ট শিশু। সিগারেট জ্বালিয়ে তিনি দিতে লাগলেন সুখ টান। ধূমপান করতে করতেই এক মাসের শিশুকে দোলাতে লাগলেন। সেক্সটন যেভাবে তার এক মাসের শিশুকে দোলাচ্ছিলেন, দেখে মনে হচ্ছিল যেন একটা পুতুলকে দোলাচ্ছে। সিগারেট খেতে খেতে ওই শিশুর মুখের কাছেই ধোঁয়া ছাড়ছিলেন তিনি।

এই ভিডিও লাইভ চলার সময়ই ভাইরাল হয়ে যায়। কয়েকজন সামাজিক মাধ্যমযোগাযোগ ব্যবহারকারী বিষয়টি স্থানীয় পুলিশের নজরে আনেন। তারপর পুলিশ পৌঁছায় সেক্সটনের অ্যাপার্টমেন্টে। সেখানে গিয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা দেখতে পান, সেক্সটন মাতাল অবস্থায় রয়েছেন। ঘরের চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি মদের বোতল।

সেক্সটনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েও শান্ত হননি সেক্সটন। জেলে যাওয়ার সময়ই শিশুটিকে গালাগাল দিতে দিতে তিনি বলছিলেন, ‘ওই বাচ্চাকে আমি আর চাই না।’ সেক্সটন জেলে যাওয়ার পর, তার মায়ের হেফাজতে রাখা হয়েছে এক মাসের শিশুটিকে।

 

সূত্র:কালের কণ্ঠ

প্রতি মূর্হর্তের ভাইরাল খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  আইইডিসিআরের ধারাবাহিক বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রদান বন্ধ হোক!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *