প্রধানমন্ত্রী ফ্লোরে বসে কথা বলছেন নাগরিকরা চেয়ারে

 

একজন নাগরিক সব সময়ই সম্মানিত, এমনকি প্রধানমন্ত্রীর চেয়েও। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো তাই মনে করেন। আর এভাবেই একজন নাগরিকের পায়ের কাছে বসে তিনি তার খোঁজখবর নিতে পারেন।

জাস্টিন ট্রুডো স্কারবোরো এসেছিলেন। রাজধানী থেকে প্রধানমন্ত্রী আসছেন-কেউ টেরই পাননি। টেলিভিশনের খবর জানিয়েছে, মেয়র জন টরিকে সঙ্গে নিয়ে তিনি কমিউনিটি হাউজিংয়ের উন্নয়নে বড় ধরনের বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন। বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতা, লিবারেল পার্টির আবুল আজাদ ফেসবুকে কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন। ছবিগুলোতে দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী হাঁটু গেড়ে মাটিতে বসে নাগরিকদের সঙ্গে কথা বলছেন। আর নাগরিকরা বসে আছেন চেয়ারে। প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেউ দাঁড়াননি পর্যন্ত। পেছনের দিকে একটি চেয়ারে বসে আছেন স্কারবোরো সাউথওয়েস্টের এমপি এবং মন্ত্রী বিল ব্লেয়ার। প্রধানমন্ত্রী ফ্লোরে হাঁটু গেড়ে বসে কথা বলছেন, আর স্থানীয় এমপি পেছনে বসে আছেন, নাগরিকের পাশে বেঞ্চে পায়ের ওপর পা তুলে বসে আছেন সিটি মেয়র- চিত্রটা ভাবতে পারেন? কিন্তু এটাই বাস্তবতা। প্রধানমন্ত্রী, এমপি, নাগরিক- আলাদা করার কোনো কারণ নেই। ছবিতে দেখেন, প্রধানমন্ত্রীকে নিরাপত্তারক্ষীরা ঘিরে রাখেননি। আমাদের আজাদ ভাই তার পেছনে দাঁড়িয়ে আছেন। একটা দেশের এগুলোই আসলে সৌন্দর্য।

 

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

আন্তর্জাতিক আরো খবর জানুন এখানে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *