পরিচয় মিলেছে নুসরাতকে বিকৃত মন্তব্যকারী সেই রাবি ছাত্রের

 

ফেনীতে অধ্যক্ষের দেয়া আগুনে নিহত মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে নিয়ে বিকৃত মন্তব্য করে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়া রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মামুন বিল্লাহর পরিচয় মিলেছে।

মামুন বিল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ থেকে সদ্য পাশকৃত ছাত্র। তিনি ২০১২-১৩ শিক্ষা বর্ষের নিয়মিত ছাত্র ছিলো। বর্তমানে তিনি এসিআই মটরস নামক প্রাইভেট কম্পানিতে সেলস কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্বরত আছেন।

 

সারাদেশ যখন নুসরাতের এই মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকে কাতর এসময় মামুন বিল্লাহর এমন বিকৃত মন্তব্যের কারন জানতে তার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার নং টি বন্ধ পাওয়া যায়।

এদিকে, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এই শিক্ষার্থীর এমন কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও ঘৃনা প্রকাশ করেছেন সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। অনেকে ডিজিটাল আইনে তার শাস্তি দাবি করেছেন।

এর আগে ‘নুসরাতকে নিয়ে রাবি ছাত্রের বিকৃত মন্তব্যে তোলপাড়!’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হলে তাতে সাধারন মানুষ তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এদিকে তোপের মুখে ওই ছাত্র তার ফেসবুক আইডি ডিঅ্যাকটিভ করে রেখেছেন। অনেকেই ওই ছাত্রকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে পোস্ট দিচ্ছেন।

জানা গেছে, একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে সেই মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাতকে নিয়ে নিউজ করা হলে সেখানে রাবি ছাত্র মামুন বিল্লাহ কমেন্ট করেন- ‘মেয়েটা কিন্ত জোস ছিল, মালটা ধর্ষণ করার মতোই ছিল’

রাবি ছাত্রের এমন বিকৃত মন্তব্যে অনেকেই তাকে ভবিষ্যৎ ধর্ষক হিসেবে চিহ্নি করে পোস্ট দিচ্ছেন। এমন মানসিকতার জন্য তাকে রীতিমতো তুলোধুনা করা হচ্ছে।

 

 

মইনুল ইসলাম নামে এক ছাত্র তার ফেইসবুকে লিখেছেন, এমন মানসিকতার একটি ছেলে কিভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে? তাকে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তিনি।

মর্তুজা বশির নামে এক ছাত্র মামুন বিল্লাহকে ভবিষ্যৎ ধর্ষক উল্লেখ করে লিখেন, আরেকটি অঘটন ঘটার আগেই সম্ভাব্য এই ধর্ষককে শাস্তি দেয়া হোক! ফুয়াদ নাসের লিখেছেন, মেনে নিতে কষ্ট হয় এই ছেলেটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে!

ইফতেখার হোসেন লিখেছেন, লজ্জা লাগছে আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করি। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে এমন নিচু মনমানসিকতা কি করে হয়!

এমন নানা কমেন্টে রাবি ছাত্র মামুনকে তুলোধনা করা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে। বাংলাদেশ টুডে

সূত্র: দৈনিক আমাদের সময়

দেশের আরো প্রতি মূর্হর্তের খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *