‘দেশ যখন মৃত্যুপুরী চোরায় তখন করে চুরি’ (ভিডিও)

 

করোনার দুঃসময়ে দেশে কোথাও কোথাও বিচ্ছিন্নভাবে সরকারি ত্রাণের চাল চুরির ঘটনা ঘটছে। অনাকাঙ্খিত এই বিষয়টি নিয়ে ‘চাল চোর’ শিরোনামে একটা চমৎকার গান করেছেন মোনকা নিয়ামুল বাশার নামের একজন সঙ্গীত শিল্পী। নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে তিনি গানটি শেয়ার করেছেন। গানটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা। অনেকেই শিল্পীকে বাহবা দিচ্ছেন। গানের কথাগুলি এমন-

“চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। প্রথমে এক চোর আইলো শিবপুর দিয়া, ২৮ বস্তা চাল লইয়া যায় পলাইয়া। চোরায় চুরিই শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…।

ওরে তারপরে এক চোরা আইলো বরগুনা দিয়া, ত্রাণের চাল চুরি কইরা জায়গায় রইছে বইয়া। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। তারপরে এক চোরা আইলো ভোলা জেলা দিয়া, চুরির খবর ফাঁস করায় সাংবাদিক মারে যাইয়া। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…।

তারপরে এক চোরায় আইলো ঝালকাঠি দিয়া, বাড়িতে ত্রাণের চাউল ধরে প্রশাসন যাইয়া। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। তারপরে এক চোরায় আইলো যশোর জেলা দিয়া, করোনার চাল-ডাল বাড়ি গেছে লইয়া। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। চোরায় চুরি শুরু করলো খোলা ময়দানে, ও চোরায় চুরি…।

তারপরে এক চোরা আইলো সাতক্ষীরা দিয়া, পুলিশের হাতে ধরা খাইয়া রইছে ভ্যাটকাইয়া। চোরায় চুরি শুরু করলো খোলা ময়দানে, চোরায় চুরি…। চোরায় চুরি শুরু করলো করোনার মধ্যে, চোরায় চুরি…। জনগণ আটকায়ে তোরে দেবেনে প্রশাসনে, ও চোরায় চুরি…।

দেশ যখন মৃত্যুপুরী চোরায় তখন করে চুরি, দেশ যখন মৃত্যুপুরী চোরায় তখন করে চুরি মানবতা ওদের মাঝে নাইইরে…আমি এই দেখিলাম চোরার ছবি আবার পলায়া যায়রে হে আমি এই দেখিলাম চোরার ছবি আবার পলাইয়া যায়রে…। দেশে মানুষ নাইইই…। চোরে চুরি করে তাই।

আরো পড়তে পারেন:  এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ৩১ মে

চেয়ারম্যান মেম্বর বাদ দিয়া সেনা যাবেন ত্রাণ লইয়া। চেয়ারম্যান মেম্বর বাদ দিয়া সেনা যাবেন ত্রাণ লইয়া, র‍্যাব-পুলিশ সমন্বয় করবেন। সুশিল সমাজ আর সাংবাদিকদের সহায়তা নিবেন, সুশিল সমাজ আর সাংবাদিকদের সহায়তা নিবেন। দেশে মানুষ নাই, চোরায় চুরি করে তাই।”

এ বিষয়ে শিল্পী নিয়ামূল বাশার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ত্রাণ চুরির গানটি কঠিনভাবে ভাইরাল। এখন তো অবিশ্বাস্য রকম! এখনো বেশীরভাগ মানুষ ন্যায়ের পক্ষে এটাই প্রমানিত। ন্যায়ের পক্ষের মানুষগুলো আপনাদের সবাইকে আল্লাহ বিপদ থেকে মুক্ত রাখুক সেই সাথে আমাকেও।’

তবে অনেকে তার গানটি অনুমতি ও ক্রেডিট ছাড়া শেয়ার করায় একটু বিরক্ত তিনি। বলেছেন, সবাই যেভাবে আমার গানটি কপি করছেন সেখানে আমি কয়জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব? সাইবার যোদ্ধা নামের একটি ফেসবুক পেজ অনুমতি ছাড়াই গানটি প্রকাশ করায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন তিনি।

একজন অবশ্য এই সমস্যার সমাধানে শিল্পীকে গঠনমূলক একটা পরামর্শ দিয়েছেন, ‘তিনি লিখেছেন একটা পরামর্শ আছে দাদা। যেহেতু গানগুলো আপনি লিখেন ফেসবুকে পরিবেশন করেন সেহেতু এটি চুরির সম্ভাবনা থাকে বা কখনও চুরি হয়ে অন্যের কাছে চলে যায়। এমতাবস্থায় আপনি একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে নিজের চ্যানেল থেকে দিয়ে তার পরে ফেসবুকে দিতে পারেন। তাতে গানটির কপিরাইট স্বত্ত আপনার থাকবে, চাইলেই কেউ চুরি করতে পারবে না এবং আর্থিক ভাবেও লাভবান হবেন।’

 

সূত্র: কালেরকণ্ঠ

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  ১১ মার্চ: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *