তিন সপ্তাহ ঘরবন্দি, তবুও করোনায় আক্রান্ত নারী!

 

করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে তিন সপ্তাহ বাড়ি থেকে বের হচ্ছিলেন না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলাইনার শার্লট শহরের বাসিন্দা রাকহেল ব্রুমমার্ট। কিন্তু তারপরেও তাকে করোনাভাইরাস ছাড় দেয়নি। তার শরীরেও বাসা বেঁধেছে মরণব্যাধী করোনা। বর্তমানে তিনি বাড়িতে থেকেই করোনার চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জানা গেছে, এর আগে রাকহেল ব্রুমমার্ট সাধারণ মানুষের মতো সুস্থ ছিলেন না। ভুগছেন অটোইমিউন ডিসঅর্ডারে। তাই করোনার এই দুঃসময়ে চিকিৎসকদের কথা শুনে নিজেকে ঘরবন্দি করে ফেলেন। সবকিছু ঠিকঠাক চললেও হঠাৎ করেই তার সর্দি-কাশি ধরে। পরে বৃহস্পতিবার করোনার পরীক্ষা হলে তার শরীরে পাওয়া যায় করোনার উপস্থিতি।

তিন সপ্তাহ বাসায় থাকার পরেও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি রাকহেল নিজেই জানিয়েছেন। তিনি জানান, তার ধারণা, তার বাসায় যে নারী মুদির দোকানের পণ্য পৌঁছে দিয়েছিলেন তার মাধ্যমে হয়তো তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ পণ্য ডেলিভারি করা ওই নারীর শরীরেও করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়।

তিনি আরো জানান, ওই নারীর সঙ্গে কোনো যোগাযোগ ছিল না। এমনকি আমি তাকে স্পর্শও করিনি। কিন্তু আমি যখন পণ্যগুলো ওই নারীর কাছ থেকে নিচ্ছিলাম তখন হাতে কোনো গ্লাভস ছিল না। পণ্য নেওয়ার পর থেকেই তিনি কাশি, জ্বর, গন্ধের সমস্যা, শরীরব্যথা, ক্লান্তি, মাথাব্যথা ও শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। এরপরই পরীক্ষায় তার করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৬০ হাজার ৪৩৩ জন। মারা গেছেন ২২ হাজার ১১৫ জন। এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩২ হাজার ৬৩৪ জন।

 

সূত্র: বিডি জার্নাল

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  প্রধানমন্ত্রী: এ দুর্যোগে নয়-ছয় করলে এতটুকু ছাড় দেওয়া হবে না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *