ডাকসু’র সিসিটিভির ফুটেজ সব ‘গায়েব’

 

ডাকসু ভবনের বাইরে এবং ভেতরে মিলিয়ে মোট ৯টি ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা আছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হকের ওপর হামলার পর এবার ডাকসু ভবনের সব সিসিটিভি ফুটেজ ‘গায়েব’ হয়ে গেছে। তবে কে বা কারা ফুটেজগুলো গায়েব করল সে বিষয়ে কোনো ধারণা নেই কর্তৃপক্ষের।

ক্যামেরার ফুটেজগুলো ধারণ করা হতো ডাকসুর সিনিয়র অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার আবুল কালাম আজাদের কক্ষে। সেই কক্ষে একটি মনিটর এবং একটি সিপিইউ ছিল। কিন্তু ডাকসু ভবনে নুরুল হকের ওপর হামলার ঘটনার পর সেই মনিটর এবং সিপিইউয়ের কোনো হদিস পাওয়া যাচ্ছে না।

আবুল কালাম আজাদ বলেন, রোববার দুপুরে যখন ডাকসু ভবনে ভিপি নুরুলের ওপর হামলা হয়, তখন তিনি বিষয়টি জানাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গোলাম রব্বানীর কার্যালয়ে যাই। পরে প্রক্টর অফিসের একজন কর্মকর্তা আমাকে জানান, ডাকসুর প্রধান ফটক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দুই পক্ষ যখন দোতলায় মুখোমুখি অবস্থান করছিল, তখন আমি আবার প্রক্টরের কার্যালয়ে গিয়ে বিষয়টি জানাই। তখন প্রক্টর জানান, বিষয়টি তিনি দেখছেন। এরপর নিজের কক্ষে এসে দেখি কক্ষের তালা ভাঙা এবং ভেতরে মনিটর ও সিপিইউ নেই। কে বা কারা সেগুলো নিয়ে গেছে সেটাও জানি না।

এর আগে, রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ভবনে হামলার ঘটনায় আহত হন ভিপি নুরুল হক নুরসহ বেশ কয়েকজন। এ দিন দুপুরে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের একাংশের নেতাকর্মীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে ডাকসু ভবনে অবস্থানকালে নুরের ওপর হামলা করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সমর্থকরা। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে ডাকসু ভবনে ঢুকে নুরসহ সেখানে থাকা সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের বেধড়ক পেটায় তারা। হামলায় আহতদের মধ্যে তুহিন ফারাবীকে ঢাকা মেডিক্যালে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

আরো পড়তে পারেন:  আসছে করোনাভাইরাসের টিকা!

 

সূত্র: বিডি জার্নাল

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *