ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ কে এই হিকস?

ঘনিষ্ঠ উপদেষ্টা হোপ হিকসের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ২৪ ঘণ্টা না যেতেই নিজেই করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মহামারী কোভিড ১৯-কে ‘সাধারণ ফ্লু’ আখ্যা দেয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট শুক্রবার সকালে এক টুইটে জানান– তিনি ও ফার্স্টলেডি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে ট্রাম্পের আরেক টুইটে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, তার ঘনিষ্ঠ উপদেষ্টা হিকস কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ঘিরে এই হিকসেরসঙ্গে ব্যস্ততম সময় কাটছিল ট্রাম্পের। সুদর্শনী হিকস নির্বাচনী প্রচার– এমনকি প্রথম বিতর্কেও ট্রাম্পের সফরসঙ্গী ছিলেন। একই উড়োজাহাজে করে তারা ঘুরে বেড়িয়েছিলেন। দুজনের কেউ-ই মাস্ক পরেননি। ট্রাম্পের সমর্থকদের কেউ কেউ বলছেন– হিকসের কাছ থেকেই সংক্রমিত হয়েছেন ট্রাম্প। খবর ব্লুমবার্গের।

৩১ বছর বয়সী হিকস একসময় হোয়াইট হাউসের জনসংযোগ পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন। দুবছর আগে তাকে এই দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। ২০২০ সালের গোড়ার দিকে তাকে আবারও হোয়াইট হাউসে ফিরিয়ে আনেন ট্রাম্প। উপদেষ্টা পদে আসীন করেন।

এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হিকস ট্রাম্পের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারই তার প্রথম রাজনৈতিক দায়িত্ব। ট্রাম্পের হয়ে হিকস সম্প্রতি বেশ কয়েকটি প্রকাশনার কাজ করেন।

হিকস বর্তমানে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা কুশনারের অধীনে কাজ করছেন। তার পদবি ‘কাউন্সিলর টু দ্য প্রেসিডেন্ট’। তার মূল দায়িত্ব ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারের কৌশল নির্ধারণ করা।
হিকসের পারফরম্যান্সে খুশি মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বৃহস্পতিবার রাতে অপর এক টুইটে ট্রাম্প লেখেন– ‘আমার সঙ্গে বিরতিহীনভাবে কাজ করা হোপ হিকসের কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে। দুঃখজনক!
হিকসের প্রশংসা করে ট্রাম্প বলেন, সে নিঃসন্দেহে অসাধারণ।

ট্রাম্প ফক্সনিউজকে বলেন, হিকসের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। আমি এইমাত্র শুনলাম। সে নিঃসন্দেহে একজন পরিশ্রমী। সে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই কাজ করত। বহু মাস্ক সে পরেছে। তবু তার করোনা ধরা পড়েছে। আমরা একসঙ্গে বহু সময় কাটিয়েছি।

আরো পড়তে পারেন:  করোনাকালে নারীরা মানসিক সমস্যায় বেশি ভুগছেন

ট্রাম্পের সমর্থকরা মনে করছেন হিকসের থেকেই সংক্রমিত হয়েছেন ট্রাম্প। কারণ ট্রাম্পের নির্বাচনী র্যা লিগুলোতে মূল দায়িত্ব পালন করেছেন ৩১ বছর বয়সী এ নারী। তিনি ট্রাম্পের সমর্থকদের সঙ্গে মিশেছেন।

এ বিষয়ে ট্রাম্প ফক্সনিউজকে বলেন, সে উষ্ণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী। সে সব কিছু ভালোভাবেই সামলেছে। সমর্থক-আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যারাই র্যা লির সময় কাছাকাছি ঘেঁষার চেষ্টা করেছে, সবাইকে সে সামলেছে। সে কাউকে দূরে ঠেলে দেয়নি।

 

সূত্র: যুগান্তর

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  ট্রাম্পের অসুখ গুরুতর হলে কী হবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *