ট্রাম্পের গ্রিনল্যান্ড কেনার বাসনা: এবার মুখ খুললেন ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী

 

অর্থের বিনিময়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দ্বীপ গ্রিনল্যান্ড কেনার যে বাসনা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রকাশ করেছেন তা এবার সরাসরি প্রত্যাখ্যান করলেন দ্বীপটির মালিক দেশ ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেট ফ্রেডেরিকসেন। তিনি বললেন, ডেনমার্কের স্বায়ত্তশাসিত দ্বীপ গ্রিনল্যান্ড বিক্রি হবে না এবং এটিকে আমেরিকার কাছে বিক্রির করার প্রস্তাব ‘হাস্যকর’।

আমেরিকা বিশ্বের বৃহত্তম দ্বীপটি কিনতে চায় বলে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের একজন অর্থনৈতিক উপদেষ্টা নিশ্চিত করার পর ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী এ বক্তব্য দিলেন।

তিনি রোববার গ্রিনল্যান্ড সফরে গিয়ে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “গ্রিনল্যান্ড বিক্রি হবে না। এটি ডেনমার্কের কোনো জিনিস নয়। গ্রিনল্যান্ডের মালিকানা সেখানকার অধিবাসীদের। আমি আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করতে চাই যে, ঠাট্টার ছলে এটি কেনার আগ্রহ প্রকাশ করা হয়েছে।”

এদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প রোববার নিজে সাংবাদিকদের কাছে একথার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন যে, তিনি তার কর্মকর্তাদের সঙ্গে সম্প্রতি বিষয়টির সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা করেছেন।

গ্রিনল্যান্ড কেনার আগ্রহ প্রকাশ করে কার্টুনিস্টদের কাছেও হাসির পাত্রে পরিণত হয়েছেন ট্রাম্প

আগামী মাসের গোড়ার দিকে ডেনমার্ক সফরে যাবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। সেখানে তিনি ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী ফ্রেডেরিকসেনের পাশাপাশি গ্রিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী কিম কিয়েলসেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলে কথা রয়েছে।

হোয়াইট হাউজের অর্থনেতিক উপদেষ্টা ল্যারি কুডলো রোববার একথার সত্যতা নিশ্চিত করেন যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার উপদেষ্টাদের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে গ্রিনল্যান্ড কেনার বিষয়ে কথা বলেছেন।

উত্তর আটলান্টিক ও আর্কটিক সাগরের মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত গ্রিনল্যান্ড দ্বীপের অর্থনীতি ডেনমার্কের সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল। স্বায়ত্তশাসিত দ্বীপটির প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্রনীতির নিয়ন্ত্রণ ডেনমার্কের হাতে থাকলেও বাকি বিষয়গুলো পরিচালনায় স্থানীয় সরকার স্বাধীনতা ভোগ করে।

সূত্র: পার্স টুডে

আন্তর্জাতিক আরো প্রতি মূর্হর্তের খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *