টেক্সাসে ওয়ালমার্টে শ্বেতাঙ্গ যুবক প্যাট্রিক ক্রুসিয়াসের একে-৪৭ নিয়ে হামলা, নিহত ২২ আহত ২৬ (ভিডিও)

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত থেকে মাত্র কয়েক মাইল দূরে ড্যালাসের ঠিক বাইরে টেক্সাসের এ্যালেন এলাকার ২১ বছরের তরুণ প্যাট্রিক ক্রুসিয়াস হিস্পানিক বিরোধী মনোভাব নিয়ে এধরনের হামলা চালান বলে পুলিশ বলছে। শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় পায়ে কালো কেডস, পরনে কারগো প্যান্ট ও গায়ে কালো টি সার্ট এবং মাথায় হেডফোন লাগিয়ে প্যাট্রিয়াক ক্রুসিয়াস সামরিক কায়দায় একে-৪৭ তাক করে গুলি করতে করতে পার্কিং লট থেকে টেক্সাসের এল পাসো শহরে সিয়েলা ভিস্তা শপিং মলে ওয়ালমার্টের শোরুমে সদর দরজা দিয়ে ঢুকে পড়ে।

এসময় একটি শিশু বন্দুকধারীর এগিয়ে আসার কথা ওয়ালমার্টে বিভিন্ন মানুষকে জানালেও তারা তা পাত্তা দেয়নি। একের পর এক গুলিতে যখন নিহতের সংখ্যা বাড়তে থাকে ততক্ষণে ভয়ঙ্কর এক বিভীষিকা নেমে আসে চারপাশে। সোয়াতের কাছে আত্মসমর্পণের আগ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ২২ ছাড়িয়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় অত্যন্ত শান্তভাবে এবং ঠান্ডা মাথায় আস্থার সঙ্গে গুলি করতে করতে এগিয়ে যায়। তার আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সে টেক্সাসে হিস্পানিকদের ওপর হামলা করতে যাওয়ার কথা উল্লেখ করেন।

ঘটনার সময় ৩৯ বছরের আদ্রিনা কুয়েজাদা নামে এক নারী তার দুই সন্তান নিয়ে একটি কাপড়ের দোকানো কেনাকাটা করছিলেন। তিনি বলেন, প্রথম শব্দ শুনে মনে করি এটি হয়ত শপিং মলের ছাদ নির্মাণের শব্দ। কিন্তু কয়েক মুহূর্তেই বুঝতে পারি এটি গুলির শব্দ। সঙ্গে সঙ্গে আমি আমার দুই সন্তানকে মেঝেতে শুয়ে পড়তে বলি। এরপর আমরা ওয়ালমার্টে জরুরি নির্গমন পথ দিয়ে বের হয়ে আসতে সক্ষম হই।

আহতদের মধ্যে চারমাসের শিশুও রয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১১ জনের মধ্যে ৯ জনের অবস্থা গুরুতর বলে ডেল সোল মেডিকেল সেন্টার জানিয়েছে। এলপাসোর একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে অপর ১৩ জনকে নেয়া হয়। সেখান থেকে দুটি শিশুকে এলপাসো শিশু হাসপাতালে নেয়া হয়। আহতদের জন্যে ২৪০ ব্যাগ রক্ত সরবরাহ করা হয়। এলপাসো শহরের ৬ লাখ ৮০ হাজার বাসিন্দার কাছে প্রয়োজনে রক্ত ও অন্যান্য সহায়তার জন্যে প্রস্তুত থাকতে বলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।  সিএনএন/বিবিসি/ডেইলি মেইল/এনবিসি

আরো পড়তে পারেন:  ইসরাইলের দর্প চূর্ণ করে দিয়েছে হিজবুল্লাহ: প্রেস টিভিকে মার্কিন বিশেষজ্ঞ

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ ঘটনাকে ‘ভয়ঙ্কর’ হিসেবে অভিহিত করে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, হামলায় অনেকে মারা গেছে। খুবই খারাপ ঘটনা এটি। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে।

সাংবাদিক সম্মেলনে এলপাসো শহরের পুলিশ প্রধান গ্রেগ এ্যালেন হামলাকারী প্যাট্রিক ক্রুসিয়াস সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানাতে অস্বীকার করেন। সে একাই হামলা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। টেক্সাসের মেয়র গ্রেগ অ্যাবট একে দেশটির ইতিহাসে অন্যতম ভয়াবহ দিন বলে বর্ণনা করেছেন। যে পুলিশ সদস্যরা হামলাকারীকে আটক করেছেন, তাদের প্রশংসা করেছেন মেয়র গ্রেগ অ্যাবট। হামলাকারীকে আটকের সময় পুলিশ কোনো গুলি খরচ করেনি। নিহতদের মধ্যে ৩ জন মেক্সিকোর নাগরিক বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে ম্যানুয়েল লোপেজ অবরাদর। এ হামলায় মেক্সিকোর ৬ নাগরিক আহত হয়েছেন।

এলপাসো শহর থেকে ঘাতক প্যাট্রিক ক্রুসিয়াসের বাড়ি সাড়ে ৬শ মাইল দূরে শান্ত এক শহর এ্যালেনে। পুলিশ প্যাট্রিকের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনছে এবং এফবিআই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করতে যাচ্ছে। প্যাট্রিক তার বাবা-মা যমজ বোন ও বয়স্ক এক ভাইয়ের সঙ্গে একই পরিবারে বাস করত। প্যাট্রিকের বাসা থেকে এলপাসো শহরে আসতে ৯ ঘন্টা সময় লাগে। ডালাস থেকে ৩০ মিনিটের দূরত্বে তাদের বাড়ি। পুলিশ তাদের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। তবে এলপাসো শহরের কারো সঙ্গে প্যাট্রিকের যোগাযোগ রয়েছে কি না পুলিশ তা এখনো জানতে পারেনি।

ওয়ালমার্ট এক বিবৃতিতে এধরনের হামলাকে বিয়োগান্তক হিসেবে অভিহিত করে নিহত ও তাদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছে।

 

 

সূত্র: আমাদের সময়

আন্তর্জাতিক আরো প্রতি মূর্হর্তের খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *