ঝিনাইদহে স্ত্রীর নামে ইন্স্যুরেন্সের ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতে হত্যা, স্বামী গ্রেফতার

ঝিনাইদহে স্ত্রীর নামে ইন্স্যুরেন্সের ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতে হত্যা, স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঝিনাইদহের মহেশপুরে স্ত্রীর নামে করা ইন্স্যুরেন্সের ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতে স্ত্রী চাঁদনী খাতুন (২০) কে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে স্বামী বিরুদ্ধে । সর্বশেষ পুলিশী তদন্তে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য মিলেছে।
এ ঘটনায় পুলিশ নিহত’র স্বামী মশিয়ার রহমানকে গ্রেফতার পুলিশ। সোমবার মধ্য রাতে উপজেলার শ্যামকুড় ইউনিয়নের গুড়দাহ গ্রামে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত চাঁদনী চুয়াডাঙ্গার জীবনগর উপজেলার মারুফদা গ্রামের শাহজাহান আলীর মেয়ে।

নিহত’র মেজো ভাই আল মামুন জানান, বেশ কিছুদিন আগে তার ভগ্নিপতি মশিয়ার রহমান চাঁদনীর নামে সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সে ২০ লাখ টাকার পলিসি খুলে দেয়। এর আগে চাঁদনীকে দিয়ে পিতার বাড়ির ৬০ লাখ টাকার জমি বিক্রি করায় ঘাতক মশিয়ার। চাঁদনি’কে হত্যা করে দূর্ঘটনায় মৃত্যু দেখিয়ে ঐ টাকা আত্মসাৎ করার পরিকল্পনা ছিলো মশিয়ারের।

তিনি অভিযোগ করেন, মশিয়ার গত নভেম্বর মাসে জীবনগর সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সে ২০ লাখ টাকা ও মেট লাইফ রাজশাহী শাখায় ৩০ লাখ টাকার পলিসি করে। মুলত মৃত্যুদাবীর টাকা পেতেই নির্মম ও নির্দয় হয়ে ওঠে মশিয়ার। এ কারণে চাঁদনীকে মারপিটের পর বৈদ্যুতিক শক দিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে।
সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সে’র ঝিনাইদহ অফিসের ইনচার্জ সাকিব মোহাম্মদ আল হাসান জানান, স্ত্রীর নামে ইন্স্যুরেন্সে করা থাকলে মৃত্যুদাবীর এককালীন টাকা পাওয়া যাবে এমন ধারণা থেকে চাঁদনীর স্বামী আরো ৩০ লাখ টাকার ইন্স্যুরেন্সে পলিসি করতে চেয়েছিল তাদের জীবননগর শাখায়। কিন্তু প্রয়োজনীয় কাগজ চাওয়ায় তিনি তা দিতে পারেননি। তিনি এই মৃত্যুটি রহস্যজনক বলেও দাবী করেন।

নিহত’র পিতা শাহজাহান আলী মঙ্গলবার বিকালে অভিযোগ করেন, দেড় বছর আগে গুড়দাহ গ্রামের বিশারত মেম্বারের ছেলে মশিয়ার রহমানের সাথে চাঁদনীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় যৌতুকের দাবিতে চাঁদনীকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করতো।

আরো পড়তে পারেন:  বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভিসা বিধিনিষেধ আরোপের আহ্বান ইইউ পার্লামেন্ট সদস্যের

তিনি আরো জানান, নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় জামাই মশিয়ারকে দুই লাখ টাকা দিয়ে একটি মোটরসাইকের কিনে দিয়েও নির্যাতন থামেনি। এক সপ্তাহ আগে জামাই মোটরসাইকেলটি বিক্রি করে দিলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার জের ধরে সোমবার রাতে চাঁদনীকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করলে সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এরপর ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য হত্যার ঘটনাটি আতœহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করে জামাই মশিয়ার।

মামলার তদন্দকারী কর্মকর্তা মহেশপুর থানার এসআই ইসমাইল হোসেন জানান, রাতেই একটি হত্যা মামলা রজু করা হয়েছে। হত্যা মামলায় নিহতের স্বামী মশিয়ারকে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মঙ্গলবার সকালে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

Source link

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  সারাদেশে ২১১ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *