জিএম কাদেরকে নিয়ে গৃহবিবাদে জাতীয় পার্টি

 

জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলের উপনেতা পদ থেকে সরিয়ে স্ত্রী রওশনকে সংসদে উপনেতা করায় বিপাকে পড়েছেন এরশাদ। দলের নেতৃত্ব নিয়ে বিবদমান অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব-বিবাদ ছড়িয়ে পড়ছে তৃণমূলপর্যায়ে। লাঙ্গলের দুর্গ রংপুর হাতছাড়া হওয়ার উপক্রম হয়েছে। জিএম কাদেরকে ৫ এপ্রিলের মধ্যেই পার্টি এবং সংসদের পদে পুনর্বহাল করা না হলে রংপুর বিভাগের সব দায়িত্বশীল নেতা পদত্যাগ এবং জাতীয় পার্টির সব ধরণের কার্যক্রম প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছেন।

জিএম কাদেরকে পুনরায় জাতীয় পার্টির (জাপা) কো-চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব দেওয়া না হলে রংপুর বিভাগের সকলকে নিয়ে একসঙ্গে পদত্যাগ করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য, রংপুর মহানগর জাপার সভাপতি ও রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। রোববার (৩১ মার্চ) জাতীয় ছাত্র সমাজের ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

মেয়র মোস্তফা বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ আর্দশের সংগঠন জাতীয় ছাত্র সমাজ গঠন করে ছিল। যা শিক্ষার্থীদের দাবি আদায়ে সামনের কাতারে ভূমিকা রাখছে। তারা অস্ত্র নয় কলম যুদ্ধে এগিয়ে যাবে দেশ ও জাতির জন্য। ছাত্র সমাজের নেতাকর্মীরা কখনোই টেন্ডারবাজি, চাঁদাবজি করে না।

২০১৪ সালে এরশাদকে সাইজ করে নির্বাচনে গিয়ে রওশন সংসদে বিরোধী দলের নেতা হন। তখন জিএম কাদের আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রী হওয়ার পরও বিপদগ্রস্থ বড়ভাইয়ের সঙ্গে ছিলেন। শুধু তাই নয় স্ত্রী রওশন ২২ বছর থেকে পৃথক বাসায় থাকেন। ২০০৭ সালে জাপাকে ভেঙ্গে নিজের নেতৃত্বে পৃথক দল গঠন করেন রওশন। তিনি বিএনপির পক্ষ্যে অবস্থান নিয়ে ২২ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশ নেন। ওয়ান/ইলেভেনে সে নির্বাচন অবশ্য বাতিল হয়ে যায়।

১৪ দলের নেতারা তাঁকে বিরোধী দলের নেতা মানতে রাজী নন। বাস্তবতা সংসদীয় রীতিতে হয় সরকারি দলে, না হয় বিরোধী দলে থাকতে হবে। মাঝামাঝি কোনো পথ নেই। এরশাদ সংসদে বিরোধী দলের নেতা হয়ে ভাই জিএম কাদেরকে উপনেতা করেন। অসুস্থতার কারণে তিনি স্বাভাবিক ভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারছেন না। উপনেতাই সংসদের কাজ চালান। জিএম কাদের দলকে সত্যিকারের বিরোধী দল করতে চাচ্ছেন। কিন্তু সিন্ডিকেট রওশন এরশাদকে উপনেতা পদে বসিয়ে নিজেদের আয় রোজগার অব্যাহত রাখতে চান। এই বিরোধেই ভাইয়ের বদলে স্ত্রীকে মূল্যায়ন করে নেতৃত্বের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন এরশাদ।

সূত্র: আমাদের সময়

দেশের আরো প্রতি মূর্হর্তের খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *