জাতীয় পার্টির ভরাডুবি

jatio parti - japa logo

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্যাপক ভরাডুবি হয়েছে জাতীয় সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (জাপা)। অনেক দেনদরবারের পর আওয়ামী লীগের কাছ থেকে ২৬টি আসনে ছাড় পেয়েছিল জি এম কাদেরের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি। শেষ পর্যন্ত ছাড় পাওয়া ২৬ আসনের মধ্যে জাপার প্রার্থীরা জিততে পেরেছেন ১১টিতে। সমঝোতার বাইরে কোনো আসনে জিততে পারেননি জাপার প্রার্থীরা। সব মিলে এবার দলটির প্রার্থী ছিল ২৬৫টি আসনে। ফলে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কমল।

বর্তমানে দলটির ২৩ জন নির্বাচিত সংসদ সদস্য রয়েছেন। এছাড়া সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য রয়েছেন ৪ জন।

বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী, জাপার চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব মো. মুজিবুল হক, কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ও এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার জয়ী হয়েছেন।

এই চার জ্যেষ্ঠ নেতার বাইরে প্রেসিডিয়াম সদস্য মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী (ফেনী-৩), এ কে এম সেলিম ওসমান (নারায়ণগঞ্জ-৫), হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (ঠাকুরগাঁও-৩), গোলাম কিবরিয়া (বরিশাল-৩), মো. আশরাফুজ্জামান (সাতক্ষীরা-২), এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান (কুড়িগ্রাম-১) ও শরিফুল ইসলাম (বগুড়া-২) নির্বাচিত হয়েছেন।

রুহুল আমিন হাওলাদার ও আশরাফুজ্জামান ছাড়া বাকিরা বর্তমান একাদশ জাতীয় সংসদেরও সদস্য।

একাদশ সংসদের ২৩ জন সদস্যের মধ্যে ১৪ জন সংসদ সদস্য হতে পারেননি।

বর্তমান সংসদ সদস্যদের মধ্যে জাপার প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ ও তাঁর ছেলে রাহগীর আল মাহি সাদ এরশাদ এবার নির্বাচন করেননি। আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতায় আসন না পেয়ে কো-চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশীদ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন।

এর বাইরে রংপুরে মসিউর রহমান রাঙ্গা ও পিরোজপুরে রুস্তম আলী ফরাজি দল থেকে বাদ পড়ে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করে হেরেছেন।

রওশনপন্থী বলে পরিচিত রংপুর-১ আসনে মসিউর রহমান ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে জিয়াউল হক মৃধাকে জেতানোর চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁরা জিততে পারেননি।

আরো পড়তে পারেন:  মিয়ানমার থেকে নাফ নদীতে ভেসে এলো বাংলাদেশি নাগরিকের লাশ

আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতায় এবার ঢাকায় একটি মাত্র আসন (ঢাকা-১৮) পায় জাপা। সেটি দলের চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের স্ত্রী ও প্রেসিডিয়াম সদস্য শেরীফা কাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে এ আসনে শেরীফা কাদের জামানত হারিয়েছেন। তিনি হেরেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী খসরু চৌধুরীর কাছে। খসরু চৌধুরী ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক।

Source link

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  তুর্কি সিরিজে প্রভাবিত হয়ে মার্কিন নারীর ইসলাম গ্রহণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *