চাঁদে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হলো ইসরায়েলি ক্ষুদ্র মনুষ্যবিহীন নভোযান

 

প্রথমবারের মত ইসরায়েলের একটি বেসরকারি ফার্ম এই উচ্চভিলাষী পরিকল্পনা নিলেও ক্ষুদ্র নভোযানটি চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণের পূর্বমুহূর্তে কারিগরী ত্রুটির কারণে বিধ্বস্ত হয়। নভোযানটির নাম দেয়া হয়েছিল ‘বেয়ারশিট’ হিব্রু ভাষায় যার অর্থ হচ্ছে ‘শুরু’। চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র ২২ কিলোমিটার দূরে ছিল এ নভোযানটি এবং ঠিকমত গতি কমিয়ে এনে ব্রেক কষতে না পারায় এটি বিধ্বস্ত হয় বলে প্রকৌশলীরা বলছেন। এ ঘটনার পর ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার আহবান জানিয়েছেন।

বিধ্বস্ত হবার আগে গত সাতদিন ধরে নভোযানটি চাঁদের চারপাশে অনবরত প্রদক্ষিণ করে। অবতরণের ঠিক পূর্বমূহুর্তেও মনুষ্যবিহীন এই নভোযানটি থেকে ছবি পাঠানো হয়। তবে চন্দ্রপৃষ্টে অবতরণ করতে না পারলেও চাঁদের কক্ষপথে প্রদক্ষিণকারী হিসেবে ইসরায়েল সপ্তম দেশ হিসেবে স্থান করে নিয়েছে। মিশন প্রধান ও অভিযান পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রক অ্যালেক্স ফ্রেইডম্যান বলেছেন, স্পেস আইএল’র প্রকৌশলীরা সর্বশেষ চেষ্টা করেও শেষ পর্যন্ত ত্রুটি আয়ত্বে আনতে পারেননি। তারপরও অ্যালেক্স বলেন, আমরা চাঁদে পৌঁছাতে পেরেছি কিন্তু যে পথে যেভাবে যেতে চেয়েছিলাম তা সম্ভব হয়নি।

তিন বছরের প্রচেষ্টায় পর স্পেস আইএল ও ইসরায়েল এ্যারোস্টেস ইন্ডাস্ট্রি এ ধরনের নভোযান তৈরির প্রকল্পে খরচ করে ১০ কোটি ডলার। এ অর্থের যোগান দেন দক্ষিণ আফ্রিকার কোটিপতি ব্যবসায়ী মরিস খান, মিরিয়াম, সেলডন এ্যাডেলসন, লিন স্কাচটারম্যানসহ অনেকে। প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেছেন, এবার চাঁদে অবতরণ করতে না পারলেও আগামী ৩ বছরের মধ্যে আরো নিখুঁত চেষ্টার মধ্যে দিয়ে ইসরায়েলের প্রকৌশলীরা সফল হবে।

ইসরায়েল এ্যারোস্পেস ইন্ড্রাস্ট্রিজের প্রকৌশলী এহুদ হায়ুন বলেছেন, মহাকাশ খুবই কঠিন। বিমর্ষ হলেও হতাশ নই। যতটুকু অর্জন করতে পেরেছি তাতেও গর্ববোধ করছি। আমরা জানতাম কাজটি ঝুঁকিপূর্ণ। আমরা চেষ্টা করেছি। চাঁদে অবতরণ ছাড়া আর সবই আমরা অর্জন করেছি।
যারা এ প্রকল্পে অর্থ যুগিয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম মরিস খান বলেন, দ্বিতীয়বার এধরনের মিশনে আরো কম অর্থ লাগবে। ইসরায়েল এ্যারোস্পেস ইন্ডাস্ট্রির জেনারেল ম্যানেজার অপার দোরন বলেন, মহাকাশের মত অধিক উচ্চতায় অবতরণের হিসেবে গরমিল হয়েছে যা নিয়ে প্রকৌশলীরা পরীক্ষা নিরীক্ষা শুরু করেছেন।

সূত্র: দৈনিক আমাদের সময়

আন্তর্জাতিক আরো প্রতি মূর্হর্তের খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *