খলিফাদের স্মৃতিচিহ্ন পুনরুদ্ধার করছে তুরস্ক

পুনরুদ্ধার হওয়া স্মৃতিচিহ্ন

খলিফাদের লুট হয়ে যাওয়া স্মৃতিচিহ্ন পুনরুদ্ধার করার উদ্যোগ নিয়েছে তুর্কি সরকার। এর মধ্যে রয়েছে খলিফাদের ঢাল, তরবারি, কুরআন শরীফ, তৈলচিত্র, ক্যালিগ্রাফি, পাণ্ডুলিপি-সহ আরও অনেক কিছু।

জানা গেছে, তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে শুরু হয়েছে এই পুনরুদ্ধার কার্যক্রম।

ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, বুলগেরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, আরব আমিরাতের মিউজিয়াম থেকে  ৪ হাজার ১ শত ৫৯ টি স্মৃতিচিহ্ন পুনরুদ্ধার করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে কুরআন শরীফের কিছু নুসখা, প্রাচীন মূল্যবান কিছু গ্রন্থের পাণ্ডুলিপি, সুলতান সালিমের সমাধি ফলক, কিছু তৈলচিত্র ও কিছু মূল্যবান ক্যালিগ্রাফি।

তুরস্কের বিভিন্ন মিউজিয়ামে সংরক্ষিত ছিল কসতুনতুনিয়া বিজেতা মোহাম্মদ আল ফাতিহসহ সকল খলিফাদেরই ঢাল, তরবারি, পঠিত কুরআন শরীফ, নানা ধরনের ব্যবহার সামগ্রী। কিন্তু বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন অস্থিতিশীলতার সময় তুরস্কের আয়া সুফিয়া, তুপকাপিসহ অন্যান্য মিউজিয়াম থেকে লুট হয়ে যায় মহান খলিফাদের অনেক স্মৃতিচিহ্ন। ইউরোপের বিভিন্ন দেশ সুযোগ পেয়ে দামি এবং মূল্যবান অনেক সামগ্রী তুরস্কের মিউজিয়াম থেকে সরিয়ে নিজেদের দেশের জাদুঘরে রাখে।

তুরস্কের মানুষ নিজেদের খলিফাদের বিভিন্ন সামগ্রী দেখতে যেত জার্মানি, বুলগেরিয়া,যুক্তরাষ্ট্র, লন্ডন এবং প্যারিসে।

কুরআন শরীফের হাতে লেখা দুর্লভ অনেক নুসখা, মূল্যবান অনেক পাণ্ডুলিপি স্থানান্থরিত হয়েছিল তুরস্ক থেকে স্পেন, আলমেনিয়া, রাশিয়া, অস্ট্রেলিয়া এবং ক্রোয়েশিয়ার জাদুঘরে।

সূত্র: কালের কণ্ঠ

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  হাদিসে বর্ণিত কালিজিরার বহুবিধ উপকারিতা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *