কবর থেকে ভেসে এলো মৃতের কণ্ঠে গান! (ভিডিও)

 

শ্যায় ব্র্যাডলি। আইরিশের সাবেক সেনাসদস্য। বয়স্কজনিত কারণে গত ১২ অক্টোবর তিনি মারা যান।

খ্রিস্টীয় ধর্মরীতি মেনে কবর দেয়ার পর কফিন থেকে ওই বৃদ্ধের কণ্ঠস্বর ভেসে আসতে থাকে। এসময় শেষকৃত্যানুষ্ঠানে উপস্থিত সবাই হতভম্ব হয়ে পড়েন। খবর স্কাই নিউজ।

জানা গেছে, আয়ারল্যান্ডের কিলকেনি প্রদেশে ব্র্যাডলিকে কবর দিতে কবরস্থানে উপস্থিত হন তার বন্ধু ও স্বজনরা।

কফিন কবরে রাখার পরপরই ভেতর থেকে ভেসে আসে ব্র্যাডলির কণ্ঠস্বর, ‘আরে, আমাকে বের করো, এখানে প্রচণ্ড অন্ধকার।’

বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে কেউ বুঝে উঠতে পারছিলেন না।

এরপর আবার কফিন থেকে আওয়াজ আসতে থাকে, ‘এ কোথায় আছি আমি? ওটা কার গলা শুনতে পাচ্ছি, পাদ্রির নাকি? আমি শ্যায় বলছি, বাক্সের ভেতর থেকে।’

এরপর গান গাইতে শোনা যায় শ্যায় ব্র্যাডলির গলায়- ‘হ্যালো আবারও হ্যালো, হ্যালো আমি শেষবিদায় বলতে কল করেছি।’

জানা গেছে, মৃত্যুর আগে তিনি শেষ কথা রেকর্ড করে রেখে গিয়েছিলেন। বলা ছিল কফিনের মধ্যে টেপ রেকর্ডারটি যেন রেখে দেয়া হয়।

ফলে তাকে বিদায় দিতে এসে বন্ধু ও পরিবারের সদস্যরাও চোখের জল ফেলার বদলে হাসিতে ফেটে পড়লেন।

ব্র্যাডলির মেয়ে আন্দ্রিয়া ব্র্যাডলি জানান, তিন বছর ধরে অসুস্থ থাকার পর গত ৮ অক্টোবর তার বাবা মারা যান। এক বছর ধরে শেষবেলার জন্য তুলে রাখা দুষ্টুমির সব পরিকল্পনা করেছিলেন ব্র্যাডলি।

আন্দ্রিয়া বলেন, ‘বাবা সব সময়ই ছিলেন প্রাণোচ্ছল। তিনি ছিলেন ব্যক্তিত্ববান এক পুরুষ।’

 

সূত্র: যুগান্তর

প্রতি মূর্হর্তের ভাইরাল খবর জানুন এখানে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  করোনাভাইরাস: সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *