এনু-রূপনের বাড়ি যেন গোপন ব্যাংক, মিললো নগদ সাড়ে ২৬ কোটি টাকা!

 

ক্যাসিনোকাণ্ডে গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা দুই ভাই এনামুল হক এনু ও রূপন ভূঁইয়ার পুরান ঢাকার আরেকটি বাসায় অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব-৩। অভিযানে জব্দকৃত বিপুল পরিমাণ টাকা গণনা শেষে সংবাদ সম্মেলন করেছে র‌্যাব।

প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-৩ এর পরিচালক লে. কর্নেল রাকিবুল হাসান জানান, এনু-রূপনের বাসা থেকে নগদ টাকার পরিমাণ ২৬ কোটি ৫৫ লাখ। সেই সঙ্গে, ৫ কোটি ১৫ লাখ টাকার এফডিআর, ১ কেজি স্বর্ণসহ চারটি দেশের মুদ্রা জব্দ করেছে র‌্যাব।

এর আগে, সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে ঐ বাড়ি থেকে ৫টি সিন্দুক ভর্তি নগদ টাকা, এফডিআর, বেশ কিছু ডলার, স্বর্ণালংকার ও ক্যাসিনো সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

রাজধানীর পুরান ঢাকার ১১৯ নম্বর লালমোহন সাহা স্ট্রীটের জাহানারা ভূঁইয়া নামের ওই ছয়তলা বাড়িতে সোমবার মধ্যরাতে অভিযান চালায় র‌্যাব-৩। ভবনটির নিচতলার তালাভেঙে ভেতরে ঢোকে র‌্যাব সদস্যরা।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম। অবৈধ সম্পদ অর্জনসহ নানা অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান সারোয়ার আলম।

ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাবের পরিচালক এনু ছিলেন গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। আর তার ভাই রুপন ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি নগদ ৪০ লাখ টাকা ও দুটি মোবাইল ফোনসহ এনামুল ও রুপনকে কেরোনীগঞ্জের সুবাদ্দা এলাকার একটি বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীতে অর্থ পাচার মামলায় দুই ভাইয়ের প্রত্যেককে ৪ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে গেন্ডারিয়া এলাকায় তাদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সাড়ে পাঁচ কোটি নগদ টাকা ও ৮ হাজার ৭২ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধারের পর থেকেই পলাতক ছিলেন এনামুল ও রুপন। তাদের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের চারটি মামলা দায়ের করা হয়।

অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) উপ-মহাপরিদর্শক ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, দুই ভাইয়ের ২২টি বাড়ি রয়েছে, যার বেশিরভাগই পুরান ঢাকায়। সেইসাথে ৯১টি ব্যাংক হিসেবে ১৯ কোটি টাকা এবং পাঁচটি ব্যক্তিগত গাড়ি রয়েছে।

আরো পড়তে পারেন:  হাদিসে বর্ণিত কালিজিরার বহুবিধ উপকারিতা

 

সূত্র: সময়য়ের কণ্ঠস্বর

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *