উন্নয়নের সুফল খাচ্ছে সিন্ডিকেট দুর্নীতিচক্র

সম্মিলিত নাগরিক সমাজের সভাপতি ও অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান বলেছেন, ‘টেকসই উন্নয়নে জাতীয় পরিকল্পনায় এডহকইজম দৃষ্টিভঙ্গি ও দুষ্টচক্রের অপতৎপরতা অন্যতম বাধা।’

‘১৫ বছর সরকারের ধারাবাহিকতায় দেশের অর্থনীতি, মাথাপিছু আয়, নারীর ক্ষমতায়ন, মানব উন্নয়নসূচক, শিক্ষার হার, গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে। দারিদ্র্য হার ও লিঙ্গ বৈষম্য হ্রাস পেয়েছে, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী জোরদার হয়েছে, মাতৃমৃত্যু হার হ্রাসে যথেষ্ট অগ্রগতি হয়েছে। কিন্তু প্রতিটি ক্ষেত্রে দুষ্টচক্র নির্মূল করতে না পারায় জনমনে প্রত্যাশিত স্বস্তি আসেনি। সংঘবদ্ধ সিন্ডিকেশন দুর্নীতিচক্র উন্নয়নের সুফল খেয়ে ফেলছে। মধ্যবিত্ত দারিদ্র্যসীমায় চলে যাচ্ছে।’

 

শনিবার সকালে কাকরাইলে আইডিইবি ভবনে সম্মিলিত নাগরিক সমাজ আয়োজিত ‘বাংলাদেশের আর্থসামাজিক পথপরিক্রমণ : আসন্ন নির্বাচনের এপারে এবং ওপারে’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, ‘ডলারের বিনিময় হারে উজ্জ্বলন, ব্যাংক খাতে খেলাপি ঋণ, পুঁজিবাজারে কারসাজি, অর্থপাচারসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুষ্টচক্রের দৌরাত্ম্য রয়েছে। সরকারের নীতি ও কর্মসূচি বাস্তবায়নের স্বার্থে যে কোনো মূল্যেই এই দুষ্টচক্রের দৌরাত্ম্য ভাঙতে হবে।’

আলোচকরা বলেন, দ্রুত ও কার্যকরভাবে এগিয়ে যাওয়ার জন্য বাস্তবমুখী শিক্ষা প্রদান করে সব খাতের বিভিন্ন পর্যায়ের দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে হবে। ডিজিটালাইজেশনের ক্ষেত্রে বিশেষ নির্ভরতা কমিয়ে দেশি বিশেষজ্ঞদের দ্বারা সফটওয়্যার তৈরিতে মনোযোগ বাড়াতে হবে। সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে।

সম্মিলিত নাগরিক সমাজের সহ-সভাপতি ও আইডিইবির সভাপতি প্রকৌশলী একেএমএ হামিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন অর্থনীতিবিদ ড. জায়েত বখত, ড. তৌফিক আহমেদ চৌধুরী, বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য এনডিসি, উম্মে হাসান জলমল, রেজাউল করিম, প্রফেসর মাহবুব, জাহাঙ্গীর আলম, কাশেম হুমায়ুন, সুভাশীষ পাল, সাদিয়া আফরীন মিম, আরিফ আহমেদ, সুনীল মজুমদার প্রমুখ।

Source link

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

আরো পড়তে পারেন:  জন্মের পরই রেগে আগুন নবজাতক, ছবি ভাইরাল
ট্যাকসেস বার এসোসিয়েশনের নির্বাচনের নেতৃত্বে চিরন্তন-সবুজ
/ সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভিসা বিধিনিষেধ আরোপের আহ্বান ইইউ পার্লামেন্ট সদস্যের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *