ইসরায়েলের সঙ্গে যে কোনো যুদ্ধের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত হিজবুল্লাহ

 

ইহুদিবাদী রাষ্ট্র ইসরায়েলের কবল থেকে জেরুজালেম ও আল-কুদস মুক্ত করাই ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর প্রধান লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির একজন শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা। আর এ লক্ষ্য বাস্তবায়নের জন্য তেলআবিব শাসক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যেকেনো ধরনের যুদ্ধে জড়াতে হিজবুল্লাহ পুরোপুরি প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার লেবাননের আল মায়েদিন টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হিজবুল্লাহর কার্যকরী পরিষদের প্রধান সাইয়্যেদ হাশেম সাফেউদ্দিন বলেন, ‘ইহুদি শাসক গোষ্ঠীর যে কেনো ধরনের আগ্রাসন বা তাদের বোকামিপূর্ণ যে কেনো পদক্ষেপের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক জবাব দিতে আমরা পূর্ণ মাত্রায় প্রস্তুত আছি।’

তিনি আরো বলেন, শত্রুর সঙ্গে এ ধরনের সংঘাতে যাওয়ার ব্যাপারে প্রতিরোধকামী সংগঠনটি অত্যন্ত উজ্জীবিত এবং নিজের পছন্দ এবং পদক্ষেপের ব্যাপারে ভালোভাবে অবগত আছে। তবে হিজবুল্লাহ কোনো যুদ্ধ চায় না এবং যুদ্ধের জন্য কাউকে প্ররোচিত করার চেষ্টা এ সংগঠনের নেই বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

হিজবুল্লাহর এ কর্মকর্তা বলেন, ইসলামি প্রতিরোধকামী ফ্রন্টের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে মুসলমানদের পবিত্র শহর জেরুজালেম ও আল কুদস ইসরায়েলের দখল থেকে মুক্ত করা। আর এ লক্ষ্য বাস্তাবায়নের ক্ষেত্রে জায়নবাদী শাসক গোষ্ঠীর সঙ্গে যে কোনো ধরনের যুদ্ধে যাওয়ার জন্য সবাইকে প্রস্তুতি নেয়া একটি দায়িত্ব।

সূত্র- পার্স টুডে।

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *