ইরান সীমান্তবর্তী সেই ইরাকি ঘাঁটি ছাড়ল মার্কিন সেনারা

 

 

আইএস নির্মূলে ব্যবহার করা ইরান সীমান্তের কাছে অবস্থিত ইরাকের কে-১ সামরিক ঘাঁটি থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নিয়েছে দখলদার মার্কিন বাহিনী।

দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় কিরকুক প্রদেশে অবস্থিত ওই ঘাঁটিটি রোববার মার্কিন সেনারা ইরাকি সশস্ত্র বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করে। খবর আল-জাজিরার।

গত বছরের ডিসেম্বরে এ ঘাঁটিতে এক মার্কিন ঠিকাদারকে হত্যার পরই ইরানের সঙ্গে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায় যুক্তরাষ্ট্রের।

এ ঘটনার জের ধরেই ইরানের শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা জেনারেল কাশেম সোলাইমানিকে হত্যা করে মার্কিন সেনারা। পাল্টা হামলা চালিয়ে ইরাকে মার্কিন ঘাঁটি গুড়িয়ে দেয় ইরান।

এক বিবৃতিতে মার্কিন বাহিনী বলেছে, উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসের বিরুদ্ধে সফল অভিযানের পর মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের সেনাদেরকে ইরাকের অন্য অংশে মোতায়েন করা হচ্ছে। ইরাক সরকারের সঙ্গে অনেক আগেই এ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছিল।

মার্কিন সেনাদের দাবি, সম্প্রতি যেসব ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে তার সঙ্গে কিংবা করোনাভাইরাসের মহামারীর সঙ্গে ঘাঁটি হস্তান্তর করার কোনো সম্পর্ক নেই।

কিরকুকের এ ঘাঁটি ইরাকের উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানের সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। আইএস নির্মূল অভিযানের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতেও এ ঘাঁটি সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে বলে তারা আশা করেন।

 

সূত্র: যুগান্তর

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  প্রধানমন্ত্রীকেও এভাবে বলা যায়!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *