‘ইরানে কেউ ওষুধ পাঠাতে সক্ষম হলে তার কাগজপত্র ওয়াশিংটনে পাঠান’

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ

 

ইরানে খাদ্য ও ওষুধ আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা নেই বলে আমেরিকা যে দাবি করেছে তাকে ডাহা মিথ্যা বলে প্রত্যাখ্যান করেছে তেহরান।ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, কেউ যদি ইরানে কোনো পণ্য রপ্তানি করতে সক্ষম হয় তবে সে যেন সে সংক্রান্ত ব্যাংকিং কাগজপত্র মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দেয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্প্রতি এক টুইটার বার্তায় লিখেছে, “প্রিয় ইরানি জনগণ, একটি বন্ধুত্বপূর্ণ বার্তা: খাদ্য, ওষুধ ও মানবকি সাহায্যের ওপর কিন্তু কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই।”

আমেরিকার এ দাবির জবাবে পাল্টা টুইট করেছে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ওই টুইটে বলা হয়েছে: “প্রিয় ইরানি ও আমেরিকান বন্ধুরা, একটি বন্ধুত্বপূর্ণ বার্তা: “যদি কেউ আপনার বাড়ি, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান কিংবা নিকটস্থ ব্যাংকের মাধ্যমে ইরানে আপনার কোনো আত্মীয়ের কাছে এক প্যাকেট ওষুধ, এক কেজি ডাল কিংবা একটি মাস্ক পাঠাতে সক্ষম হন তাহলে সে সংক্রান্ত কাগজপত্র মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দিন।”

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ সম্প্রতি জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসকে লেখা এক চিঠিতে জানিয়েছিলেন, আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরান প্রয়োজনীয় ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী আমদানি করতে পারছে না এবং এ কারণে ইরানের করোনাভাইরাস মোকাবিলার কাজ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

 

সূত্র: পার্স টুডে

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  করোনা টেস্টে অ্যান্টিবডি কিটের অনুমোদন দেয়া হয়নি: ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *