‘আমি ওবামা প্রেসিডেন্ট ছিলাম, মনে আছে তো?’

 

দু’মিনিট ষোলো সেকেন্ডের একটি ভিডিও। সাবেক আমেরিকান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার শেয়ার করা সেই ভিডিওটি নেট দুনিয়ায় আপাতত ঝড় তুলেছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, নীল ফুল হাতা শার্ট পরা ওবামা তার পাশে রাখা একটি ল্যান্ডফোন থেকে একটি নম্বরে ডায়াল করছেন। আসলে এক নারীকে ফোন করে এবারের ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেনের হয়ে ভোট চেয়েছেন বাইডেনেরই সাবেক ‘বস’।

ওবামা ভিডিওটি নিজের টুইটার হ্যান্ডলে শেয়ার করার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রায় ২০.৮ লক্ষ নেট-নাগরিক সেটি দেখে ফেলেছেন। এলিসা ক্যামেরোটা নামে যে নারীকে তিনি ফোন করেছিলেন, সেই নারীও সোশ্যাল মিডিয়ায় সাবেক প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তার কথাবার্তার সেই ভিডিও পোস্ট করেছেন। দেশের সাবেক প্রেসিডেন্টের ব্যবহারে এলিসা তো মুগ্ধই, নেট-নাগরিকদের অনেকেই ওবামার প্রশংসায় এখনও পঞ্চমুখ।

ভিডিওটি শেয়ার করার আগে একটি নোট লিখেছেন ওবামা। বলেছেন, ‘বাড়িতে থেকে বা পোলিং স্টেশনে গিয়ে পার্থক্যটা আপনিই গড়তে পারবেন। অনেক প্রদেশেই মাত্র কয়েকটা ভোটের হেরফেরেই অনেক কিছু হতে পারে…।’’

ভিডিওর শুরুতে দেখা গিয়েছে, এলিসা ফোনটা তোলার পরেই নিজের পুরো নাম বলে তাকে তিনি জিজ্ঞেস করেন, ‘আমি আপনাদের প্রেসিডেন্ট ছিলাম, মনে আছে?’ এলিসা ততক্ষণে ফোনের অপর প্রান্তে থাকা ব্যক্তির গলা চিনে ফেলেছেন। তিনি উত্তর দেন, ‘আমার মনে হয় এবার প্যানিক অ্যাটাক হবে।’

ওবামা তাকে মনে করিয়ে দেন, মঙ্গলবারের ভোটের কথা। জানান, এবারের ভোট কেন এত গুরুত্বপূর্ণ। বলেন, ‘আমি চাই বাইডেন আর কমলার হয়ে আপনি ভোট দিন। চাইলে আপনার পোলিং বুথ সংক্রান্ত সব তথ্যও আমি আপনাকে দিতে পারি।’ এলিসা উত্তরে জানান, তিনি সব জানেন, তিনি অবশ্যই ভোট দিতে যাবেন। কথার মাঝেই শোনা যায় এক শিশুর গলা। ওবামা এবার এলিসাকে জিজ্ঞেস করেন ব্যাপারটা ঠিক কী।

এলিসা জানান, তার আট মাসের ছেলে রয়েছে। নাম জ্যাকসন। ওবামাকে তাকে জ্যাকস সম্বোধন করে তার সঙ্গে কথা বলতে চান।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন

আরো পড়তে পারেন:  ইউরোপের কোথায় কেমন ‘লকডাউন’

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

DSA should be abolished
/ জাতীয়, সব খবর
Loading...
আরো পড়তে পারেন:  ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *