আমাদের বুকের গভীরে তার মৃত্যু নেই: জয়া আহসান

ইরানের প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক দারিউশ মেহেরজুইয়ের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান।

সোমবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তিনি লিখেছেন, পৃথিবীজুড়ে নানা খারাপ খবর। মনটা খুবই খারাপ হয়ে থাকে। কিন্তু এর মধ্যেও একটা খবর শুনে একদম শিউড়ে উঠলাম। কে বা কারা ইরানের মশহুর পরিচালক দারিউশ মেহেরজুইকে ছুরি দিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। তাকে একা নয়, একইভাবে হত্যা করেছে তার স্ত্রীকেও।

তিনি বলেন, এত অপূর্ব সব সিনেমা বানিয়ে ইরানকে যিনি পৃথিবীর সামনে গর্বের সঙ্গে তুলে ধরলেন, কে তাকে এভাবে হত্যা করতে পারল? এমন একজন মানুষেরও কি এমন নিষ্ঠুর শত্রু থাকতে পারে? মৃত্যুর সময়ও নিশ্চয় দারিউশ মেহেরজুই অবাক হয়ে সে কথাই ভাবছিলেন!যেই তাকে হত্যা করুক, আমাদের বুকের গভীরে তার মৃত্যু নেই।

গত ১৪ অক্টোবর নিজ বাড়ি থেকে দারিউশ মেহেরজুই ও তার স্ত্রীকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাদের গলায় ছুরির আঘাত ছিল।

মেহেরজুইয়ের মেয়ে মোনা মেহেরজুই শনিবার রাতে রাজধানী তেহরানের পশ্চিমে প্রায় ৩০ কিলোমিটার (১৯ মাইল) দূরে উপশহরের বাড়িতে তার বাবার সঙ্গে দেখা করতে গেলে মৃতদেহগুলো দেখতে পান।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আইআরএনএ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে, অজ্ঞাত হামলাকারীরা ছুরিকাঘাতে তাদের হত্যা করেছে।

ইরানের নিউ ওয়েভ ফিল্ম মুভমেন্ট বা চলচ্চিত্রে পরিবর্তনের যে আন্দোলন, তার অগ্রনায়কদের একজন দারিউশ মেহেরজুই। তার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘দ্য কাউ’ এই আন্দোলনের প্রথম চলচ্চিত্র হিসেবে বিবেচিত হয়, যাতে মাসুদ কিমিয়াই, নাসের তাকভাইও ছিলেন।

এছাড়া নির্মাতার লেইলা, হামোউন, দ্য টেন্যান্টস ও দ্য পিয়ার ট্রি চলচ্চিত্র উল্লেখযোগ্য।

Source link

এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক পেজটি লাইক দিন এবং এই রকম আরো খবরের এলার্ট পেতে থাকুন

 আরো পড়তে পারেন:  

Loading...
আরো পড়তে পারেন:  দেড় হাজার বছর আগেই কোরআনে মহাকাশের যত তথ্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *